চীফ রিপোর্টার, সিবিএন:
উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালংয়ের মরিচ্যা গরুরবাজারে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে পাঁচ গরু মারা গেছে। একই সাথে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে আহত হয়ে চারজন মানুষ। রোববার বিকাল ৪টার দিকে বাজার চলাকালে এই ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক জামাল উদ্দীন জানান, গরুর বাজার চলাকালে আকস্মিক পল্লী বিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের একটি তার ছিঁড়ে পড়ে। এতে বাজারের লোকজন দ্রুত দৌড়ে সরে যায়। সরে গিয়ে লোকজন রক্ষা পেলেও খুটির সাথে বাঁধা পাঁচটি গরু তারের জড়িয়ে যায়। এসময় আগুনের শিখা ছড়িয়ে পড়ে। বেশ কিছুক্ষণ পর বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করা হলে আগুন নিভে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই গরুগুলো মারা যায়।
এই প্রত্যক্ষদর্শী আরো জানান, বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে আগুন নিভে গেলে প্রায় ২০ মিনিট পর মরা গরুগুলো জবাই করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। গোস্ত বিক্রি করার জন্য গরুগুলো জবাই করা হয়। তবে তারা ব্যর্থ হয়েছে। খবর পেয়েছে পুলিশ এসে মরা গরু জবাইকারীকে আটক করে। পরে তারা ক্ষমা চেয়ে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পায়।
স্থানীয় লোকজন জানান, ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’য় ক্ষতিগ্রস্ত পল্লীবিদ্যুতের সংযোগে ত্রুতি হয়। অন্যান্য স্থানে মেরামত করা হলেও ওই স্থানে মেরামত হয়নি। তাই বিদ্যুৎ সংযোগ চালু হওয়ার পর থেকে ওই স্থানে বিদ্যুতের শর্ট হচ্ছিল। শেষে তার ছিঁড়ে পড়েছে।
উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। অভিযোগ পেয়ে মরা গরুগুলো জবাইকারীদের আটক করা হয়। পরে ক্ষমা প্রার্থণা করলে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।
উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাঈন উদ্দীন বলেন, ‘জানতে পেরেছি বিদ্যুতের সাথে শক খেয়ে গরুগুলো সাথে সাথে মারা গেছে। তবে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী সেগুলো বিক্রি করার জন্য জবাই করে দেয়। এই রকম অভিযোগ পেলে ওই অসাধু ব্যবসায়ীদের আটক করা হয়। তবে ক্ষমা চাওয়ায় তাদের ছেড়ে দিয়ে গরুর মরদেহগুলো পুঁতে ফেলতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •