বিশেষ প্রতিনিধি
কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালীতে পাহাড় কাটার সময় অভিযান চালিয়ে একটি ট্রাক আটক করেছে বনবিভাগ। কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) আবু ইউসুফের নেৃতত্বে বৃহস্পতিবার উক্ত অভিযান চালানো হয়। অভিযানে হাতেনাতে আটক ড্রাম্প ট্রাক (নং চট্টমেট্রো-ড-১১-০৫৭৭) এর মালিক পিএমখালীর পাহাড় কাটার মূলহোতা ওবায়দুল করিম। তার একই নম্বরের দুটি ডাম্পার রয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালীতে দীর্ঘদিন ধরে পাহাড় কাটছে ওবায়দুল করিম-মোবাশ্বের সিন্ডিকেটের সদস্যরা। তারা বনবিভাগ ও পরিবেশ অধিদপ্তরকে ম্যানেজ করে ইতোমধ্যে ১৮টি পাহাড় সাবাড় করে ফেলেছে। কিন্তু কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগে নতুন ডিএফও যোগদানের পর বিপাকে পড়ে পাহাড়কাটা সিন্ডিকেট। তারা নতুন ডিএফওকে ম্যানেজ করতে এখন জোর তদবির শুরু করেছে। পাশাপাশি আটক ট্রাকটিও ছাড়িয়ে নিতে। তবে ডিএফও আবু ইউসুফ আটক ট্রাকটি কোন চাপেই ছেড়ে দেবেন না বলে জানান।

স্থানীয়রা জানান- ইতোমধ্যে উক্ত ওবায়দুল করিম তার বাড়ির কবরস্থান সংলগ্ন প্রায় ১০ একর বিশিষ্ট শত ফুট উঁচু একটি পাহাড় গত এক বছরে ধীরে ধীরে কেটে সমতল ভূমিতে পরিণত করেছে। কিন্তু পরিবেশ অধিদপ্তরসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসন এ বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে নির্লিপ্ত রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •