ডেস্ক নিউজ:
মিয়ানমারের কারাগার থেকে ছাড়া পেয়ে দেশে ফিরেছেন পাঁচ বাংলাদেশি। থাইল্যান্ডের সীমান্তে অবস্থিত তানিনথারি কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে তারা দেশে ফিরেছেন বলে নিশ্চিত করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

শুক্রবার ইয়াঙ্গুনে বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, এক নির্বাহী আদেশে দেশটির প্রেসিডেন্ট ৩৩ বাংলাদেশিকে ক্ষমা করে দেওয়ার পর এ প্রক্রিয়া শুরু হয়।

মিয়ানমারে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে এসব বাংলাদেশিকে বিভিন্ন সময়ে কারাগারে পাঠনো হয়েছিল। ইয়াঙ্গুনে বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা যাচাই করে তাদের বাংলাদেশি বলে শনাক্ত করেন।

তারপর তাদের মুক্ত করে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালানো হয়। মুক্তির পর মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় সাধন করে বাংলাদেশ দূতাবাস তাদের ফেরত আনছে।

আগামী ব্যাচে ৯ জেলেকে ১২ জুন বিমানে ফেরত আনা হবে। মাছ ধরার ইঞ্জিনচালিত নৌকা বিকল হয়ে মিয়ানমারের সীমানায় প্রবেশ করায় তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছিল। অবশিষ্ট ১৯ জনকে সীমান্ত দিয়ে ১৫ জুন দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।

ইয়াঙ্গুনে বাংলাদেশ দূতাবাস বলেছে, ইতোপূর্বে ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে বাংলাদেশ সরকার মিয়ানমারের ৯২ জেলেকে সাধারণ ক্ষমা দিয়ে নিজ দেশে পাঠিয়েছিল।

১৯৮০ সালের সীমান্ত চুক্তির কারণে দুই দেশ ভুলবশত অনুপ্রবেশকারীদের বিভিন্ন সময়ে হস্তান্তর করে থাকে।

– জাগোনিউজ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •