হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ:
টেকনাফে সাংবাদিক ও ডিবি পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভূক্ত শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী বাহিনীর প্রধান নুরুল হক ভুট্টোর বৃদ্ধ পিতা এজাহার মিয়াকে (৬২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ৭ জুন বুধবার ভোরে টেকনাফের কুলালপাড়া মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। তিনি সাংবাদিক হামলার এজাহার নামীয় আসামি ও ডিবি পুলিশের অজ্ঞাতনামা আসামী এবং নাজিরপাড়ার মৃত নজু মিয়ার ছেলে। টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাইন উদ্দিন আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তার নেতৃত্ব পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তাকে বুধবার সকালে ওইসব মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কক্সবাজার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য গত বছর ১৩ মে টেকনাফে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সময় টিভির স্টাফ রিপোর্টার সুজাউদ্দিন রুবেল, ক্যামেরাপার্সন ফয়েজ, ইন্ডিপেডেন্ট টিভির জেলা প্রতিনিধি তৌফিকুল ইসলাম লিপু, ক্যামেরাপার্সন শরীফ, ৭১ টিভির জেলা প্রতিনিধি কামরুল ইসলাম মিন্টুর ক্যামেরাপার্সন বাবু কান্তিকে এলাপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভূক্ত টেকনাফের শীর্ষ ইয়াবা গডফাদার ও সন্ত্রাসী বাহিনী প্রধান নুরুল হক ভূট্টো ও তার বাহিনী। এ ঘটনায় ১৫ মে রাত্রে ইন্ডিপেডেন্ট টিভির কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি তৌফিকুল ইসলাম লিপু বাদি হয়ে ইয়াবা গডফাদার টেকনাফের নাজিরপাড়ার মৃত এজাহার মিয়ার ছেলে নুরুল হক ভ্ুেট্রাকে প্রধান আসামী করে এজাহার নামীয় ১৯ জন ও অজ্ঞাত ১০/১৫ জন ইয়াবা ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছিল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভূক্ত টেকনাফের শীর্ষ ইয়াবা গডফাদার ও সন্ত্রাসী বাহিনী প্রধান নুরুল হক ভূট্টো এখনও আটক হয়নি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •