cbn  

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
বাংলাদেশ উশু ফাউন্ডেশন, কক্সবাজার এর ইফতার মাহফিল ও উশু কৃতি ক্রীড়াবিদেরকে সংবর্ধনা সোমবার হেটেল মিশুকের জা- মেরেডিয়ান রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বাংলাদেশ উশু ফাউন্ডেশন, কক্সবাজার এর মহাপরিচালক গ্র্যান্ড মাস্টার ডি.এম. রুস্তম এর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বায়তুশ শরফ কমপেক্স এর মহা-পরিচালক সমাজসেবক ও শিক্ষাবিদ আলহাজ্ব এম.এম. সিরাজুল ইসলাম।

তিনি এ ধরনের উদ্যোগকে বিধ্বংসী ছাত্র-যুব সমাজের রক্ষায় উশু গ্র্যান্ড মাস্টার ডি.এম. রুস্তমেরও ভুয়সী প্রশংসা করেন।

বাংলাদেশ উশু ফাউন্ডেশন, কক্সবাজার এর পরিচালক এন.এম.এম. মাসরু-উজ-জামান এর সঞ্চালনায় এবং পরিচালক মোঃ আরিফুল আজিম এর পবিত্র আল-কোরআন থেকে তেলয়াত এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিচালক মোঃ সুলতান মাহমুদ।

বক্তৃতা করেন কক্সবাজার সরকারী বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক মসরুর জামান, কক্সবাজার সোসাইটির সভাপতি ও সংগঠনের পরিচালক কমরেড গিয়াস উদ্দিন, পরিচালক এম.এন আবসার সোহেল ।

প্রধান অতিথি আলহাজ্ব এম.এম. সিরাজুল ইসলাম উশুর গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করেন এবং তার পক্ষ থেকে সবধরনের সহযোগিতা এর আশ্বাস দেন।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগকের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ড. নুরুল আবচার।

তিনি রমজান মাসের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে আল-কোরআন ও আল-হাদিস আলোকে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মোহাম্মদ শাহিন আব্দুর রহমান চৌধুরী।

সভাপতি উশু গ্র্যান্ড মাস্টার ডি.এম. রুস্তম বলেন, ১৯৭৭ খ্রিস্টাব্দ থেকে ৩০-৪০ বছর নিরলস সাধনায় অর্জিত এই উশু। সুস্বাস্থ্যের জন্য উশু, শান্তির জন্য উশু, আত্মরক্ষার জন্য উশু এবং সামাজিক অবক্ষয় থেকে জাতিকে রক্ষার জন্য উত্তম ও শেষ্ঠ উপায় উশু বলে ইংগিত করেন।

জাতীয় পর্যায়ে জেলা উশু ক্রীড়াবিদের বিশেষ অবদান, কোচ-জাস স্বীকৃতি প্রাপ্তদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

এতে অন্য মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এবং ইফতার পরবর্তী আলোচনায় অংশ নেন উশু পরিচালক মোঃ ইসলাম, সনজিত ধর, মোঃ আসাদুল ইসলাম, শামসুল আলম, হাসনা হুরাইন, এড. সকী-এ-কাউসার, মোঃ আলমগির, উজ্জল কান্তি দে, এইচ.এম.জাকারিয়া তুহিন প্রমুখ।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •