cbn  

ইমরান হোসাইন, পেকুয়া:

পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের ফুলতলা বাজারে নির্বিচারে গুলি চালিয়েছে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। এতে স্কুলছাত্র, কলেজ ছাত্র ও ব্যবসায়ীসহ ১৪ ব্যক্তি আহত হয়েছে।

শনিবার (৩জুন) রাত ৮টার দিকে ইউনিয়নের ফুলতলা বাজারে আফজলিয়া পাড়ার বাসিন্দারা এ ঘটনা ঘটায় বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

আহতরা হলেন- ফুলতলা বাজার এলাকার আব্দু রহিমের ছেলে জসিম উদ্দিন (৫৮), জয়নাল আবেদিনের ছেলে ইসমু কাদের (১৪), জসিম উদ্দিনের পুত্র আবু হানিফ (২৬), আব্দুল্লাহ (১৯), আবুল বশরের ছেলে আজহার উদ্দিন (৩২), রশিদ আহমদের ছেলে জুনাইদ (১৮), আবু তাহেরের ছেলে মোস্তাক আহমদ (৪০), মোঃ করিম (৩০), মোঃ আনছারের ছেলে রাশেদ (১৪), মৃত ইব্রাহিমের ছেলে শিহাব উদ্দিন (৪৫), মোঃ হাশেমের ছেলে নজরুল ইসলাম (৩৮), ওসমান গণির ছেলে জুবাইরুল ইসলাম (১৬), আশফাক মিয়ার ছেলে আমির হোসেন (১৮) ও নজরুল ইসলামের ছেলে মনিরুল ইসলাম বাবু (১০)।
হামলাকারীরা হলেন, আলী আকবর বাদল, জয়নাল, আবু ছৈয়দ, আহমদ কবির, আনছার, সোনাইয়্যা, আরকান, আনোয়ার, নেজাম, মো. ইউনুছ প্রকাশ গুরাইয়্যা, আমজাদ, আশরাফ মিয়া, আমির সহ ১৫/২০ জনের একদল সন্ত্রাসী একাধিক অস্ত্র নিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি বর্ষণ করে।
 প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আফজলিয়া পাড়ার এক ব্যক্তির সাথে ফুলতলা বাজারের এক ব্যবসায়ীর কথা কাটাকাটির জের ধরে এ গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। এসময়  সন্ত্রাসীরা ফুলতলা বাজারে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। পরে পেকুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। আহতদের মধ্যে ৬ জনের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মনজুর কাদের মজুমদার বলেন, ঘটনার সাথে সাথে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে। এসময় ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নেজাম উদ্দিন নামের একব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •