cbn  

পরিবর্তন:
ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপারসন ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা সুলতানা কামালকে গ্রেপ্তারে ২৪ ঘণ্টার সময় বেঁধে দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম। শুক্রবার জুমার নামাজের পর বায়তুল মোকাররম মসজিদের মূল গেটে এক সমাবেশে হেফাজত নেতারা এই সময়সীমা বেঁধে দেন।
হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগর শাখার সহসভাপতি মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীব বলেন, ‘সাহস কত সুলতানা কামালের! তিনি বলেছেন, ভাস্কর্য থাকতে না দিলে মসজিদ থাকতে দেওয়া হবে না। সুলতানা কামাল রাজপথে নেমে দেখুন, হাড্ডি-গোস্ত রাখা হবে না।’
তিনি বলেন, ‘আমি বলতে চাই, বদরের যুদ্ধ কিন্তু রমজান মাসে হয়েছে। মক্কায় যত মূর্তি সরানো হয়েছে, সেটা রমজান মাসেই সরানোর হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতি মূর্তি কি এখান থেকে সরাবেন? নাকি আমরা আসব? যদি আমাদের আসতে হয়, বাংলাদেশে পূজা মণ্ডপ ছাড়া আর কোথাও মূর্তি রাখা হবে না।
তিনি আরো বলেন, ‘প্রশাসন ও সরকারকে বলতে চাই, আমরা যে আসতে পারি, আপনাদের নিশ্চয় তা জানা আছে। ২৪ ঘণ্টায় কোটি মানুষ ঘেরাও করবে হাইকোর্ট। মেহেরববানি করে আমাদের আসতে বাধ্য করবেন না। আমরা যে দিন আসব, পুলিশ ঠেকাতে পারবে না। আমরা যে দিন আসব, কাফনের কাপড় হাতে নিয়ে আসব।’
মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীব বলেন, ‘সুলতানা কামাল বলেছেন, ভাস্কর্য না থাকলে মসজিদও থাকবে না। এ ধরনের বক্তব্য দেওয়ার পর আমরা প্রশাসনকে বলেছি, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাকে গ্রেপ্তার করতে হবে অথবা তাকে নির্বাসনে পাঠিয়ে দিতে হবে।’
জুনায়েদ আল হাবীব বাংলাদেশের সর্বত্র মসজিদ নির্মাণ, মসজিদ আধুনিকায়ন ও মসজিদে সৌর বিদ্যুৎ স্থাপনে প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগের প্রশংসা করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •