cbn  

মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আজাদ, ঈদগাঁও:

রামু উপজেলার রশিদ নগর ইউনিয়নের থলিয়াঘোনা এলাকায় ঘুর্ণিঝড় “মোরা’র তান্ডবের কয়েক ঘন্টা পরেই এক বিধবা মহিলার বসতঘর ভাঙচুর করেছে একই এলাকার ২ প্রভাবশালী। এতে করে ঐ বিধবা দিলদার বেগম তার ৯ ছেলে সন্তান নিয়ে খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। ঘটনাটি ঘটেছে বর্ণিত এলাকার মৃত গুরা মিয়ার বসতঘরে। প্রতিবাদ করলে ঐ মহিলার পুত্র মোবারককে দা দিয়ে কোপানোর চেষ্টা করলে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় প্রাণে বেঁচে গেলেও বর্তমানে ঘরছাড়া হয়েছে। বর্ণিত এলাকার ২ প্রভাবশালী শহিদুল ইসলাম ও নুরুল হুদা প্রকাশ গুরাইয়ার নেতৃত্বেই চলছে দখল প্রতিযোগিতা। গত ৩০ মে হঠাৎ “মোরা” তান্ডবে এলাকার বাড়ীঘর ও গাছপালা ভেঙ্গে যায়। এর সুবাদে কৌশলী শহিদুল ইসলাম ও নুরুল হুদা বসতঘরটি দখলে নিতে ঘুর্ণিঝড় “মোরা”য় ভাঙচুর হয়েছে সাজিয়ে ঐ বিধবার বসতঘরটি ভেঙ্গে দেয়। স্থানীয় সচেতন মহলের দাবী, দীর্ঘদিন যাবত শহিদুল ইসলামগং ঐ জায়গাটি দখলে নিতে একাধিকবার হামলা চালিয়েছে। বিধবার পুত্র ফারুক কামাল ও মোবারক জানান, বিবাদী শহিদুল ইসলাম গং এতই প্রভাবশালী যে, তাদের সাথে কোন কিছুর প্রতিবাদ করলেই হত্যার ষড়যন্ত্র ও ইয়াবা কিংবা নারীদের জড়িয়ে জেলখানায় ঢুকাবে বলেও হুমকি দেয়। নিরুপায় হয়ে মোবারক ভয়ে বর্তমানে এলাকার বাইরে রয়েছে। যে কোন মুহুর্তে ঐ বিধবার বসতঘর দখলে নিয়ে তাদের উপর হামলা চালাতে পারে বলে মোবারকের দাবী। ভূক্তভোগী এ পরিবার পুরো বিষয়টি নিয়ে উৎকন্ঠায় রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •