বৃষ্টিতে জনজীবনে স্বস্তি

নুরুল আমিন হেলালী

জৈষ্ট্যের অতি তাপদাহে অতিষ্ট জনজীবনে অবশেষে স্বস্থির বৃষ্টির দেখা মিলেছে। ২৮মে শনিবার বৈকালিক বৃষ্টিতে জৈষ্ট্যের তাপদাহে অতিষ্ট জেলার সর্বত্র শুষ্ক প্রাণে ফিরে এসেছে প্রাণস্পন্দন। স্বল্পসময়ের হালকা বর্ষণ তাপদাহে নাভিশ্বাস উঠা প্রকৃতি ও জনজীবনে স্বস্থি ফিরিয়ে দিয়েছে। আবহওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের কারণে গত কয়েকদিন প্রকৃতি ও আবহওয়া গুমট অবস্থায় বিরাজমান ছিল। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ঋতু পরিবর্তনও প্রলম্বিত হতে শুরু করেছে। আর সেই কারণে বাংলা বর্ষপঞ্জী অনুসারে জৈষ্ট্যের শেষদিকে এসে দেখা দিয়েছে গ্রীষ্মের খরতাপ, দাবদাহ ও উষ্ণপ্রবাহ। বৃষ্টির প্রত্যাশায় প্রকৃতিতে চলেছে মেঘ বন্দনা। আমন চাষের মৌসুম শুরু হয়ে গেলেও কৃষককুল বৃষ্টির অভাবে মাঠে নামতে পারেনি। ফলে বিলম্বিত হয়েছে বীজতলা তৈরিসহ আমন চাষের পূর্বপ্রস্তুতি। প্রচন্ড খরতাপের কারণে জেলার বিভিন্ন স্থানে ভূ-গর্ভস্থ পানিস্থরও নিচে নেমে যাওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। হালকা বর্ষণে বাঁকখালী, মাতামুহুরী ও ফুলেশ্বরী নদীসহ অন্যান্য ছোট ছোট খাল ও ছড়ায় সামান্য হালের পানি পড়েছে। শহরের বিভিন্নস্থানে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশনের অভাবে সৃষ্টি হয়েছে হালকা জলাবদ্ধতা। টেকসই ও কার্যকরী ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকার ফলে গোলদিঘীর পাড়, বড়বাজার, বাজারঘাটা, থানার পেছনরোড়,বৌদ্ধমন্দির সড়ক, চাউল বাজার, গাড়িরমাঠ এলাকাসহ সর্বত্র হালকা জনদূর্ভোগ বেড়েছে। কিছু কিছু সড়কে বৃষ্টির পানি রাস্তার কাদার সাথে মিশে জলকাদায় ভরে গেছে। ফলে বিঘিœত হয়েছে যানচলাচল ও জনজীবনের স্বাভাবিক গতিপ্রবাহ। বৃষ্টির পানি নিষ্কাশনের টেকসই ব্যবস্থার অপ্রতুলতার কারণে পুরো বর্ষামৌসূমে ওই সমস্ত এলাকার অবস্থা এরকম থাকতে পারে বলে মন্তব্য স্থানীয় বাসিন্দাদের। অপরিকল্পিতভাবে আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের ফলে শহর ও পার্শ্ববর্তী এলাকাসমূহে প্রতিবছর বাড়ছে জলাবদ্ধতা। এছাড়া ড্রেনেজ ব্যবস্থার সুষ্ঠু তদারকির অভাবে ড্রেনগুলো বৃষ্টির পানি নিষ্কাশনে অকার্যকর হয়ে পড়েছে। শহরের জলাবদ্ধতা দূরীকরণে পদক্ষেপ নেয়া না হলে বর্ষার ভারী বর্ষণে জনদূর্ভোগ চরম পর্যায়ে পৌঁছাতে পারে বলে মনে করছেন সচেতনমহল।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

পোকখালীতে চিংড়ি ঘেরে ডাকাতির চেষ্টা, মালিককে কুপিয়ে জখম

মহেশখালীতে ৩দিন ব্যাপী কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু

ইন্টারনেট সুবিধার আওতায় কক্সবাজার প্রেসক্লাব

আওয়ামীলীগ ভাওতাবাজিতে চ্যাম্পিয়ন : ড. কামাল

সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল

সাতকানিয়ায় মাদকসহ আটক ২

কক্সবাজারে হোটেল থেকে বন্দী ঢাকার তরুণী উদ্ধার

৩০০ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত ইসলামী আন্দোলনের

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে খেলনা বেলুনের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আহত ৯

চকরিয়া আসছেন পুলিশের আইজি, উদ্বোধন করবেন থানার নতুন ভবন

না ফেরার দেশে গর্জনিয়ার জমিদার পরিবারের দুই মহিয়সী নারী

চকরিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

চকরিয়ায় ৪০শতক জমিতে দরিদ্র কৃষকের ক্ষেতে দুবৃর্ত্তের তান্ডব

পিসফুল ইউনাইটেড ক্লাবের অগ্নিদগ্ধে মৃত রায়হানের স্বরণ সভা ও দোয়া মাহফিল 

১০ নম্বরি হলেও নির্বাচন বয়কট করবো না : ড. কামাল

প্রকৃত নেতা মাত্রই পল্টিবাজ : ইমরান খান

ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে অধিনায়ক সাকিব, ফিরেছেন সৌম্য

বিজয় ফুল তৈরী প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম বিভাগে প্রথম উখিয়ার নওশিন

চকরিয়ার রুবেল বাঁচতে চায়

দূর্নীতির দায়ে চট্টগ্রামের কারা ডিআইজি প্রিজন ও জেল সুপারের বদলী