নিজস্ব প্রতিবেদক:
মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের কালাগাজির এনামুল হক নামে জামিনে থাকা এক আসামীকে আটকের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় কালাগাজির বাজার থেকে প্রতিপক্ষের লোকজনের সহায়তায় তাকে মহেশখালী থানা পুলিশ আটক করে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। আটক এনামুল করিম হরিয়ারছড়ার নূরুল হক ভেট্টার পুত্র।
এনামের পিতা নূরুল হক জানান, এনাম আইয়ুব আলী বাহিনীর সাথে কোনো দিনও সম্পৃক্ত নেই। কিন্তু আত্মীয় হওয়ায় প্রতিপক্ষ জালাল বাহিনীর লোকজন এনামকে শত্রুতার বশত কয়েকটি মামলায় আসামী করে। ওইসব মামলাতে আদালতে আত্মসমর্পণ করে কয়েক মাস আগে জেল থেকে বের হয় এনাম। তখন থেকে নিয়মিত মামলায় হাজিরা দিয়ে আসছে।
জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবারও একটি মামলায় হাজিরা দিয়ে কক্সবাজার থেকে সন্ধ্যায় এলাকায় পৌঁছেছেন। কক্সবাজার থেকে পৌঁছে কালাগাজির পাড়া বাজারে অবস্থান করলে পুলিশ তাকে আটক করে। এসময় পুলিশের সাথে জালাল বাহিনীর সদস্য বহু মামলার পলাতক আসামী আবুল কালামের পুত্র আবছার ও ছিদ্দিকের পুত্র ইসমাঈলও ছিলো বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এনামের পিতা নূরুল হক আরো জানান, আইয়ুব আলী বাহিনীর সাথে এনামের কোনো সম্পক্ততা নেই। এমনকি তাদের সাথে যোগাযোগ পর্যন্ত নেই। ওই এলাকা থেকে চলে গিয়ে তারা হরিয়ারছড়ায় বসবাস করছেন। জেল থেকে বের হয়ে এনাম কিছু ব্যবসা-বাণিজ্য করে পরিবারের ভরণপোষণ করছেন। কিন্তু ঈর্ষান্বিত হয়ে জালাল বাহিনীর লোকজন পুলিশকে ভুল ও মিথ্যা বুঝিয়ে এনামকে আটক করিয়েছে।

রাত সাড়ে ৯টায় যোগাযোগ করা হলে, এনাম নামে হোয়ানকে কেউ আটক নেই বলে জানিয়েছেন মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •