জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক পিএ কাজল আর নেই। বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর শিকদার উইমেনস মেডিকেল কলজে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। লিভার সংক্রান্ত অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি।

পিএ কাজলের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন তার ভাগ্নি প্রিয়াঙ্কা আচার্য। তিনি বলেন, বুধবার রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ মামা (পিএ কাজল) মারা যান।

প্রিয়াঙ্কা আচার্য আরও বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে রায়েরবাজারের একটি শ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হবে। তার মরদেহ শমরিতা হাসপাতালের হিমাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এর আগে চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে পিএ কাজলকে শিকদার উইমেনস মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তার পুরো নাম পূর্ণেন্দু আচার্য কাজল। তার স্ত্রীর নাম সুচিত্রা আচার্য। দাম্পত্য জীবনে তিনি পুত্র চয়ন আচার্য ও কন্যা স্মৃতি আচার্য নামে দুই সন্তানের জনক।

তিনি চাষী নজরুল ইসলামের সহকারী হিসেবে চলচ্চিত্রাঙ্গনে যাত্রা শুরু করেন। ১৯৯১ সালে ‘গোধূলী’ চলচ্চিত্রের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

বর্তমান প্রজন্মের শাকিব-সাইমনসহ অনেক তারকাই তার ছবিতে অভিনয় করেছেন। তিনি ঋত্বিক ঘঠক, মৃণাল সেন, সত্যজিত রায়, সুভাষ ঘোষের চলচ্চিত্র নির্মাণ ও ভাব-দর্শন দ্বারা প্রভাবিত।

সাব্বাস বাঙালি’, ‘ভণ্ড ওঝা’, ‘গণ দুশমন’, ‘ভালোবাসা আজকাল’, ‘প্রাণের স্বামী’, ‘এক টাকার বউ’ এর মতো জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের নির্মাতা তিনি। তার নির্মিত সর্বশেষ ‘চোখের দেখা’ সিনেমাটি গত বছর মুক্তি পায়।

পিএ কাজল সর্বশেষ রিয়াজ-মৌসুমীকে নিয়ে ‘আমরাও পারি’ শিরোনামের একটি ছবি নির্মাণ করতে চেয়েছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •