গত শুক্রবার বাদ আসর বদর মোকাম জামে মসজিদে কিছু মানুষের জন্য দোয়া করার ঘোষণা দেওয়ায় ভুল বুঝা-বুঝির সৃষ্টি হয়েছে। তা নিরসনের প্রেক্ষিতে কক্্সবাজার বদর মোকাম মসজিদের সম্মানিত মুসল্লি, মসজিদ কমিটির সম্মানিত পরিচালক বৃন্দসহ সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, সেই দিন আসর নামাজের আগে মসজিদে গিয়ে জনৈক ব্যক্তি একটি কাগজের টুকরায় কিছু ব্যক্তির নাম লিখে তাদের জন্য এবং তাদের ব্যবসার জন্য সুরা আনামের খতম পড়ার অনুরোধ করেন। কাগজে যাদের নাম ছিল তাদের কোন ঠিকানা বা পরিচয় লেখা ছিল না বিধায় তাদেরকে আমি চেনার কথা নয়। তাই ইমাম হিসেবে সরল মনে আমি দোয়ার পূর্বে বিষয়টি ঘোষনা দিয়েছিলাম। এছাড়া আর কিছু নয়।

কিন্তু পরবর্তীতে বিভিন্ন মাধ্যমে জানতে পারি সেই দিন পরিচয় গোপন করে যাদের জন্য দোয়া চাওয়া হয়েছিল তারা নাকি ঢাকার সেই বিতর্কিত সমালোচিত আপন জুয়েলার্সের মালিক পক্ষ। ঢাকার সেই বিতর্কিত ঘটনার জন্য কক্্সবাজার এসে কেউ দোয়া চাইবে এই বিষয়টি আমার কল্পনাতীত ছিল। বিষয়টি জানার পর আমি মর্মাহত ও অনুতপ্ত হয়েছি। এমতাবস্থায় সংশ্লিষ্ট সকলের নিকট আমার অজান্তে ঘটে যাওয়া ভুলের জন্য আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করছি।

একজন মুসলমান ও ইমাম হিসাবে প্রত্যেকটি অপরাধ ও অপরাধীর বিরুদ্ধে আমার সুদৃঢ় অবস্থান ব্যক্ত করছি। অতএব, আশা করি এ বিষয়ে আর কোন ভুল বুঝাবুঝি হবে না।

মুহাম্মদ ইউনুছ ফরাজী
ইমাম, বদর মোকাম জামে মসজিদ
কক্্সবাজার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •