কাদের হোছাইন :

রামুতে মাদক ব্যবসায়ির নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলায় একজন গুরুতর আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (১৯ মে) সকাল ৯টায় রামু উপজেলার কলেজ গেইট সাতগরিয়া পাড়া এলাকার এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহত হলেন, সাত গরিয়া পাড়া এলাকার কলিমুল্লাহ (৫৫)।

আহত কলিমুল্লাহ জানান, ওই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ি আলবদর কমান্ডার , এলাকায় অত্যাচার , ভূমিদস্যূতা , ক্রিমিনালি , রামু বৌদ্ধ মন্দির পুড়ানোর অন্যতম আসামী সহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত মোজাফ্ফর কোম্পানী দীর্ঘদিন ধরে আমার জমি দখল করার পায়তারা করিতেছে। কিন্তু ক’য়েক দিন ধরে সন্ত্রাসী দিয়ে আমার জমিতে মাটি ভরাট করে । এতে আমি বাঁধা দিলে আমাকে মারিবে , কাটিবে ও প্রাণে হত্যার হুমকী দেয়। এতে আমি গত শুক্রবার সকাল তার দোকানের সামনে আসিলে আল বদর বাহিনীর কমান্ডারের পালিত সন্ত্রাসী অলী আহমদ সহ ৭/৮ জন্য সন্ত্রাসী আমাকে লোহার রড দিয়ে আঘাত করতে চাহিলে আমি হাত দিয়ে তা প্রতিরোধ করি। সাথে সাথে আমার হাতের আঙ্গুল ভেঙ্গে যায়। উক্ত ঘটনার দৃশ্য দেখে আশে-পাশের লোকজন আগাইয়া এসে আমাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। আমি হাসপাতালের চিকিৎসা শেষে বাড়ীতে ফিরিলে সন্ত্রসাী অলী আহমদ তার দলবল নিয়ে আমার বাড়ীতে আগুন লাগাবে , আমাকে এবং আমার পরিবারের সদস্যদের প্রাণে হত্যার হুমকী দিয়ে চলে যায়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় , হামলাকারিরা কলিমুল্লাহকে অলী আহমদসহ তার সন্ত্রাসীরা লোহার রড দিয়ে মারতে চাইলে সে কোন রকম হাত দিয়ে তা প্রতিরোধ করে। তাকে মারার দৃশ্য দেখতে পাইয়া এলাকাবাসী তাকে বাঁচানোর জন্য আগাইয়া যায়।

ঘটনার মূল কারণ জানতে চাইলে এলাকাবাসী জানান , কলিমুল্লাহর আর.এস ১০৮০/১নং খতিয়ান , ১১৪৯ এর ১০৩৩ মোট ৭৪ শতক জমির উপর মোজাফ্ফর কোম্পানী জোরপূর্বক জবর-দখল করার জন্য ব্যবহার করছে সন্ত্রাসী অলী আহমদকে । না হয় অলী আহমদের এরকম কোন ক্ষমতা নাই বলে জানান এলাকাবাসী। সন্ত্রাসী আলী আহমদ বাহিনীকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী। তার বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

এদিকে হামলার পর জনস্বার্থ দূর্নীতির তথ্য প্রকাশকারীর প্রতিনিধি কাদের হোছাইন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে গিয়ে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •