ধারণ ক্ষমতার দ্বিগুন রোগী জেলা সদর হাসপাতালে

ইমাম খাইর, সিবিএন
মাত্রাতিরিক্ত রোগী বেড়েছে জেলা সদর হাসপাতালে। কেবিন, সীট পেরিয়ে ফ্লোরেও রোগীদের ঠাঁসাঠাঁসি অবস্থান। আড়াইশ শয্যার হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বেড়ে এখন প্রায় সাড়ে ৫’শ। কমছেনা, বরং রোগীর সংখ্যা বাড়ছে প্রতিদিন।
হাসপাতালে নেই পর্যাপ্ত ডাক্তার ও নার্স। ইনডোর আউটডোর মিলে রোগীদের চরম অবস্থা। যে কারণে রোগীদের সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
সুত্র জানায়, হাসপাতালে প্রয়োজন ৭২ জন ডাক্তার। আছে মাত্র ৫৩ জন। জরুরী বিভাগে ৭ জনের স্থলে দায়িত্ব পালন করছে মাত্র ২ জন। ১৩টি ওয়ার্ডে নার্স আছে শ’খানেক। সেখান থেকেও প্রায় ৩০ জন তদবির করে অন্যত্র চলে গেছেন। পরিস্কার পরিচ্ছনার অভাবে হাসপাতালের চারিদিকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। গত সপ্তাহ ধরে করুণ অবস্থা। হাসপাতাল সুপার ও আরএমও আন্তরিক হলেও বাকীরা দায়িত্ব পালনে উদাসীন। স্যুয়ারেজ লাইনের নোংরা পরিবেশে হাসপাতালে থাকা কষ্টকর। জোড়াতালি দিয়ে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, জরুরী বিভাগে যে দুইজন ডাক্তার রয়েছেন তারা ইনডোর আউডোর রোগী দেখার পাশাাপশি ময়নাতদন্তও করছেন। ফাঁকে ক্লাস নেন মেডিকেল ছাত্রদের। সব মিলিয়ে ডাক্তার সংকটে ভোগছে হাসপাতালের জরুরী বিভাগ।
সরেজমিন হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, নীচ তলা থেকে পঞ্চম তলা পর্যন্ত সীটের নীচে অনেক রোগী বেডবালিশ নিয়ে পড়ে আছে। প্রতি ফ্লোরে ওয়ার্ডের বাইরেও রোগীদের ঠাঁসাঠাঁসি অবস্থান। গরমে হাপাচ্ছে এসব রোগীরা। ওখানেই কোনমতে সেবা চালানো হচ্ছে। তবে, অতিরিক্ত রোগীর চাপে পর্যাপ্ত চিকিৎসাসেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষরা।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মোঃ শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী বলেন, গরম বেড়ে যাওয়ায় রোগীও বাড়ছে। ডাক্তার সমস্যা দীর্ঘদিনের। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট অনেকবার লিখা হয়েছে। তিনি বলেন, সমস্যা সমাধানের চেষ্টা অব্যাহত আছে।
সিভিল সার্জন ডা. পু চ নু বলেন, ধারণ ক্ষমতার চেয়ে রোগীর সংখ্যা বেশী-সেকথা ঠিক। এরপরও রোগীদের সেবা নিশ্চিত করতে আমরা সাধ্য মতো চেষ্টা করছি। প্রয়োজনীয় জনবল সংকটের কারণে অনেক সময় পেয়ে ওঠা সম্ভব হয়না। তবে, শীগ্রীই তা সমাধানের আশা করছেন সিভিল সার্জন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

গাজাসহ ডিআরসি কর্মকর্তা আটক

কক্সবাজার-৩ আসনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের চূড়ান্ত প্রার্থী আলহাজ্ব ডাঃ মুহাম্মদ আমীন

চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে আধুনিক সিটি স্ক্যান মেশিন

খাশোগি হত্যায় ৫ সৌদি কর্মকর্তার ফাঁসির আদেশ

কেন শুরু হলো না রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন?

মেরিন ড্রাইভ সড়কে যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ

জুমার দিনের দোয়া: নাজিমরা ফিরে আসুক কল্যাণের পথে

রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা-নজরদারিতে এবার আর্মড পুলিশের নতুন ব্যাটালিয়ন

তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষের দ্বন্দ্ব, হচ্ছেনা বিশ্ব ইজতেমা

ঈদগাঁওতে পিএসপি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা

দেশপ্রেমিক আদর্শ জনগোষ্ঠী তৈরী করছে কওমি মাদ্রাসা -আহমদ শফী

১৯৯০ ব্যাচের ছাত্র নুর রহিমের মায়ের মৃত্যু, ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় প্রাক্তন ছাত্র পরিষদের শোক

ভোট আর পেছাচ্ছে না

নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে ঈদগাঁওতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল

চকরিয়া পৌর যুবলীগ নেতা ফরহাদ আর নেই, জানাজা সম্পন্ন

বেবী নাজনীন ছাড়া পেয়েছেন, নিপুনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে

চকরিয়ায় উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধে কর্মশালা সম্পন্ন

চকরিয়ার সাংবাদিক বশির আল মামুনের মাতার ইন্তেকাল

শহীদ জিয়া স্মৃতি মেধা বৃত্তি পরীক্ষার চকরিয়া কেন্দ্রের স্থান পরিবর্তন

নয়াপল্টনে ‘ট্রাফিকের’ দায়িত্বে বিএনপি কর্মীরা