মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি :

বান্দরানের লামা উপজেলায় প্রতিপক্ষের হামলায় আলী আহমদ লিডার (৫৫) নামের এক কৃষক গুরুতর আহত হয়েছেন। জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার সরই ইউনিয়নের কম্পনিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। কৃষক আলী আহমদ লিডার কম্পনিয়া পাড়ার বাসিন্দা মৃত শামসুল হক হাওলাদার ছেলে। স্থানীয়রা আহতকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তৃতি চলছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কৃষক আলী আহমদ লিডার বুধবার দিবাগত রাতে রাত ৯টার দিকে কম্পনিয়া জামে মসজিদে এশার নামাজ আদায় করে কম্পনিয়া-পূর্বচাম্বি সড়ক পথে পায়ে হেঁটে বাড়ি যাচ্ছিলেন। এ সময় তিনি সড়কের খলিল সওদাগরের বাড়ির পাশে পৌঁছলে পূর্ব থেকে ওঁত পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তার ওপর হামলা করে। এতে গুরুতর আহত হন কৃষক আলী আহমদ লিডার। খরব পেয়ে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে এগিয়ে গেলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

আহত কৃষকের ছেলে মো. সোলাইমান হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় পাহাড়িকা প্লান্টেশন ও দোলোয়ার হাজি নামের জনৈক ব্যক্তির সাথে জমি নিয়ে আমার বাবার সাথে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে গজালিয়া ইউনিয়নের বাইশপাড়ী গ্রামের বাসিন্দা কংজারি মার্মার ছেলে সুমন মার্মা (৩৫), সাতকানিয়া উপজেলার দক্ষিণ সরদলা গ্রামের বাসিন্দা ছৈয়দুর রহমানের ছেলে আবদুল মালেক (৫২), কক্সবাজারের মহেশখালীর বাসিন্দা এলাদুর ছেলে হেলাল (২২) ও রোহিঙ্গা নাগরিক মো. সেলিম (২৫) সংঘবদ্ধ হয়ে বাবার ওপর হামলা করে। হামলার পর ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সময় স্থানীয় লোকজন হামলাকারিদেরকে দেখতে পান বলেও জানান তিনি।

লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, কৃষক আলী আহমদের ওপর হামলার ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •