মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও:

মাস্টার নুরুল কবির-রাশেদা খানম ফাউন্ডেশন কর্তৃক কৃতি শিক্ষার্থী ও গুণীজন সংবর্ধনার অতিথিরা বলেছেন, রাজনীতির ঘৃণ চক্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের কুরে কুরে হত্যা করছে। রাজনীতিবিদরা মিথ্যা বুলিতে তাদের ভবিষ্যত নষ্ট করছে। তারা বলেন, শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন দেখতে হবে। সে স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দেয়ার জন্য যোগ্যতার প্রস্তুতি নিতে হবে। মানুষদের নিজেকে চর্চা করতে হবে। ইহকাল ও পরকালের মুক্তির প্রধান হাতিয়ার শিক্ষা। তাই সময় থাকতে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যত লক্ষ্য স্থির করতে হবে। সত্য ও সন্দরের বিকাশ সাধনই শিক্ষা। শিক্ষার প্রধান লক্ষ্য মানবতা। নিজের দায়িত্ববোধ থেকে এ সেবায় এগিয়ে আসতে হবে।

১৭ মে সকালে চৌফলদন্ডীর নতুন মহাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সরকারের যুগ্ম সচিব, শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ আবুল কালাম।

বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার সিটি কলেজ অধ্যক্ষ ক্য থিং অং, ডুলাহাজারা ডিগ্রী কলেজ অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দীন চৌধুরী, ঈদগাহ ফরিদ আহমদ ডিগ্রী কলেজ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা, বদর খালী ডিগ্রী কলেজ অধ্যক্ষ এ.কে.এম ফজলুল হক। ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. সিরাজুল হক শাহজাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও কক্সবাজার কমার্স কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ প্রফেসর ফজলুল করিম। তাকে এ সংগঠনের পক্ষ থেকে শিক্ষা-সংস্কৃতির প্রচার ও প্রসারে অসামান্য অবদানের জন্য আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়। এছাড়া শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন নাইক্ষ্যংছড়ি ডিগ্রী কলেজ অধ্যাপক শফি উল্লাহ, টেকনাফ ডিগ্রী কলেজ অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন, ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষক মো. আবু তাহের, জেলা কাজী সমিতির কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান বেলাল। শুরুতে সংগঠনের সার্বিক কার্যক্রম নিয়ে ধারণা দেন সংস্থার সেক্রেটারী অধ্যাপক রহমত ছালাম। কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য দেয় ঈদগাহ জাহানারা ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মাহিয়া সুবাহ মুমু এবং ঈদগড় এএমবি উচ্চ বিদ্যালয়ের রাকিব হাসান।

গণ্যমান্যদের মধ্যে ছিলেন নাইক্ষ্যংছড়ি ডিগ্রী কলেজ অধ্যাপক মুজিবুর রহমান, ইসলামপুর দাখিল মাদ্রাসা সুপার মাওলানা নজিব আহমদ, ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় অব. প্রাপ্ত শিক্ষক মো. শের আলী, ঈদগাঁও প্রেস ক্লাব সভাপতি মো. রেজাউল করিম, আবু তাহের চৌধুরী, ওমর আলী মেম্বার, আনিসুর রহমান, মোস্তফা হেলালী, ছাবের আহমদ, মারুফ অর রশিদ, শাহ আলম, শামসুল আলম প্রমুখ। এতে শিক্ষা-সংস্কৃতি ও ইসলামের প্রচার এবং সমাজ সংস্কারে অসামান্য অবদানের জন্য ঈদগাঁও আলমাছিয়া ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ মরহুম মাওলানা মোহাম্মদ ছৈয়দ নুর ও খুটাখালীর বহু প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা, কবি ও সাহিত্যিক মরহুম মাওলানা আফজল আহমদকে মরণোত্তর সম্মাননা প্রদান করা হয়। এছাড়া শিক্ষা-সংস্কৃতি ও সমাজ সেবায় অসামান্য অবদানের জন্য ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ও ডুলাহাজারা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক, শিক্ষাবিদ মোহাম্মদ সেলিম উল্লাহ সেলিমকে মরণোত্তর ক্রেস্ট দেয়া হয়।

বক্তারা বলেন, নিজের দায়িত্ববোধ থেকে শিক্ষাগুরু ড. শাহজাহান মেধাবী শিক্ষার্থীদের স্বীকৃতি দিয়ে মানব সেবায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এর অর্থমূল্য না থাকলেও স্বীকৃতি রয়েছে। যা ভবিষ্যতে তাদের জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে। সভাপতির বক্তব্যের আগে কৃতি শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট ও পুরস্কৃত করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •