মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া দক্ষিণ :
ডুলাহাজারা মগছড়াজুম এলাকাবাসী ব্যাবহারের একমাত্র পুকুরটি স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ভরাট করে ঘর নির্মানের চেষ্টা চালাচ্ছে। এঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চলছে টানটান উত্তেজনা।

সুত্রে জানায়, চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের মগছড়াজুম এলাকার সর্দার ও ওই এলাকার মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম সহ মুসল্লিরা জানান মগছড়াজুম এলাকার প্রায় অর্ধ শতাধীক বসতঘরের নারী পুরুষদের ব্যবহারের একমাত্র পুকুরটি ইউছুপ আলীর পুত্র দানু মিয়া নামে বিএস ৪৮ খতিয়ানের ৭৩, ৭৪ দাগে অন্তর্ভুক্ত। এপুকুরের কিছু অংশ জমি খাস খতিয়ানেও রয়েছে। কিন্তু দানুমিয়ার ওয়ারিশেরা উক্ত পুকুরটি এলাবাসীর জন্য উন্মুক্ত করে দেয় পাশাপাশি পুকুরটির আয়ের টাকা মসজিদের ব্যয়ের খাতে ব্যবহার করার জন্য সম্প্রতি সিদ্ধান্ত হয়। এ সংবাদ জেনে এলাকার প্রভাবশালী ও দখলবাজ চক্রের সদস্য গিয়াস উদ্দিন নামের এক ব্যক্তি পুকুরটি দখল করে ঘর নির্মাণে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এঘটনার প্রতিকার চেয়ে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একটি অভিযোগ দায়ের করে। উক্ত অভিযোগটি সরেজমিনে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নিতে ইউপি চেয়ারমনকে নির্দেশ দেন। নির্দেশ পেয়ে চেয়ারম্যান নুরুল আমিন চৌকিদার পাঠিয়ে পরবর্তি নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত পুকুরটিতে কোন ধরনের কাজ না করার জন্য নির্দেশ দেন। এ নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে দখলবাজ গিয়াস ঘর নির্মাণের কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসীর সাথে যেকোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে। এব্যপারে এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্থক্ষেপ কামনা করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •