বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে পারেন বিচারপতি কারনান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়ে ছয় মাসের কারাদণ্ড পাওয়া কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সি এস কারনান গ্রেফতার এড়াতে সীমান্ত পেরিয়ে ‘নেপাল বা বাংলাদেশে’ পালিয়ে আসতে পারেন। ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

ভারতের সর্বোচ্চ আদালত বিচারপতি কারনানকে ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়ার পর তাকে গ্রেপ্তারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপরতা শুরু করে। এর মধ্যেই বুধবার তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও আইনজীবীর ডব্লিউ পিটার রমেশ কুমার জানিয়েছেন, গ্রেফতার এড়াতে দেশ ছেড়েছেন কারনান। প্রেসিডেন্ট তাকে পুণরায় নিয়োগ দিলেই তিনি দেশে ফিরবেন বলেও উল্লেখ করেছেন রমেশ কুমার।

এ বছরের শুরুতে মাদ্রাজ হাইকোর্টের ৬১ বছর বয়সী বিচারপতি কারনান ভারতের ২০ জন দুর্নীতিগ্রস্ত বিচারকের নাম উল্লেখ করে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত দাবি করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে চিঠি পাঠিয়েছিলেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে দ্বন্দ্বেও জড়িয়ে পড়েন কারনান।

সোমবার প্রধান বিচারপতি জে এস খেহারসহ আটজনের বিরুদ্ধে ওই কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেন কারনান। তার মাত্র একদিন পরই অর্থাৎ মঙ্গলবার আদালত অবমাননার দায়ে বিচারপতি কারনানকে দোষী সাব্যস্ত করে সুপ্রিম কোর্ট তাকেই ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয়। তাকে গ্রেফতার করতে কলকাতা পুলিশ প্রধানকেও নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্ট।

ওই নির্দেশের পরেই চেন্নাইয়ের চিপৌক গভর্নমেন্ট গেস্ট হাউস থেকে বুধবার সকালে চেন্নাই থেকে প্রায় ১৩০ কিলোমিটার দূরে অন্ধ্র প্রদেশের চিত্তোর জেলার মন্দির কালাহস্তি পরিদর্শনের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে যান বিচারপতি কারনান।

কারনান সীমান্ত পেরিয়ে ‘নেপাল বা বাংলাদেশে’ প্রবেশ করতে পারেন। এমনটাই দাবী করছেন তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী রমেশ কুমার। তবে কোন পথে কীভাবে কারনান পালালেন সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। সড়ক পথে চেন্নাই থেকে ভারতের যে কোনো সীমান্তে পৌঁছাতে অন্তত একদিন সময় লাগে। বর্তমানে কারনান কোথায় অবস্থান করছেন সে সম্পর্কে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

একান্ত সাক্ষাৎকারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসাইন অপরাধীর সাথে আপোষ নয়

প্রসঙ্গ : প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলতি দায়িত্ব

বৃহত্তর ঈদগাঁওয়ের প্রায় ১শ কি.মি সড়ক চলাচলের অনুপযোগী, সেতুমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ

টেকপাড়ায় মাঠে গড়াল বৃহত্তর গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্টের ৫ম আসর

মাতারবাড়ী কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প পরিদর্শনে গেলেন বিভাগীয় কমিশনার

নতুন বাহারছড়ার সেলিমের অকাল মৃত্যু: মেয়র মুজিবসহ পৌর পরিষদের শোক

জেলা আ’ লীগের জরুরী সভা

মাদক কারবারীদের বাসাবাড়ীতে সাঁড়াশি অভিযান, ইয়াবাসহ আটক ৩

সৈকতে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় উন্নয়ন মেলা কনসার্ট

পেকুয়ায় অটোরিকশা চালককে তুলে নিয়ে মারধর

পুলিশ সুপারের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ

ফেডারেশন অব কক্সবাজার ট্যুরিজম সার্ভিসেস এর সভাপতি সংবর্ধিত

কাউন্সিলর হেলাল কবিরকে বিশাল সংবর্ধনা

কলাতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, দুইজনকে জরিমানা

আ. লীগের কেন্দ্রীয় টিমের জনসভায় সফল করতে জেলা শ্রমিকলীগ প্রস্তুত

মানবপাচারকারী রুস্তম আলী গ্রেফতার

দেশে গণতান্ত্রিক অধিকার নেই, পুলিশী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে : শাহজাহান চৌধুরী

১২দিনেও খোঁজ মেলেনি মহেশখালীর ১৭ মাঝিমাল্লার

শেখ হাসিনার উন্নয়নের লিফলেট বিতরণ করলেন ড. আনসারুল করিম

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার-১০