কোনাখালীতে পাকাধান কেটে লুট, ৩কৃষককে কুপিয়ে জখম

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া:

চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নে দিনদুপুরে জমির পাকাধান কেটে লুটে নিয়েছে সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা। এসময় বাঁধা দিতে গেলে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে তিন কৃষককে। শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে ইউনিয়নের পূর্ব কোণাখালী সিকদার পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- চকরিয়া উপজেলা কোণাখালী ইউনিয়নের পূর্ব কোণাখালীর সিকদার পাড়ার এলাকার মৃত আবদুল গফফরের ছেলে নুরুল আজিম (৪২), একই এলাকার মৃত ইসহাকের ছেলে নুরুল আবছার (৫৫) ও মৃত আবুল ফজলের ছেলে আবদুস সাত্তার (৪৪)।

ঘটনার পরপর আহতদেরকে উদ্ধার করে পরিবার সদস্যরা চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। আহতদের মধ্যে নুরুল আজিমের হাতের আঙ্গুল কেটে গেছে এবং মাথায় গুরুতর জখম হয়েছে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় নুরুল আজিমকে কর্তব্যরত চিকিৎসক কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কিন্তু সেখানে তাঁর শাররীক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আক্রান্ত কৃষকদের পরিবার সদস্যরা জানান, উপজেলার পুর্ব কোণাখালী সিকদার পাড়া এলাকায় কৃষক নুরুল আজিম, নুরুল আবছার ও আবদুস সাত্তার নিজেদের ক্রয়করা ৬০ শতক এবং বর্গা নেয়া আরো ১২ কানি জমিতে কৃষক আবদুর রহিমসহ চারজন মিলে চলতি মৌসুমে ধান চাষ করেন।

আহতরা জানান, ধান কাটার মৌসুম ঘনিয়ে আসলে স্থানীয় একটি লাঠিয়াল চক্র তাদের জমির পাকাধান কেটে লুটের অপচেষ্টায় মেতে উঠে। এরই জের ধরে গতকাল শুক্রবার সকালে স্থানীয় আবদুল মালেক, আহমদ উল্লাহ, রুবেল, কফিল, রাহমত উল্লাহ, বেলাল উদ্দিন ও জামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে ৩০-৩৫জন অস্ত্রধারী দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়ে প্রকাশ্যে গুলি বর্ষন করে জমির ধান কাটতে শুরু করে।

আহত কৃষক নুরুল আবছার ও আবদুস সাত্তার জানান, জমির পাকা ধান কেটে লুটে নেয়ার খবর পেয়ে তাঁরা তাৎক্ষনিক সেখানে গিয়ে বাঁধা দেন। এসময় হামলাকারী দুর্বৃত্তরা জমির মালিক কৃষকদেরকে লোহার রড, হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ও কিরিচের আঘাতে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

ঘটনার পরপর পরিবার সদস্যরা উপস্থিত স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। তন্মধ্যে আহত নুরুল আজিমের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে চমেক হাসপাতালে রেফার করেন জরুরী বিভাগের চিকিৎসক।

চকরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান বলেন, জমির পাকাধান কেটে লুটের এ ঘটনায় এখনো কোন ধরণের অভিযোগ পায়নি। তবে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

জাতিসংঘের গণহত্যা বিষয়ক প্রধান আদামা দিয়েং এখন কক্সবাজারে

গ্রহনযোগ্য নির্বাচন হয়েছে : এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা

অদম্য গতিতে এগিয়ে চলার মূল প্রেরণা রাষ্ট্রের স্বাধীনতা

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ-এ গণহত্যাদিবস উদযাপন

শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হলেন অধ্যাপক ফরিদ

দুবাই কনস্যুলেটে গণহত্যা দিবস পালিত

ভাইরাল সেই ছবি নিয়ে যা বললেন আবুল কালাম চেয়ারম্যান …..

পিইসিতে মেধা তালিকায় দুইজনসহ কক্সন মাল্টিমিডিয়া স্কুলের ঈর্ষণীয় সাফল্য

কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হলেন রফিকুল ইসলাম খান

শহীদ এটিএম জাফরের পক্ষে স্বাধীনতা পদক গ্রহণ করলেন ছোট ভাই শাহ আলম

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভা

এপ্রিলে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

সদর উপজেলায় প্রার্থীতা ফিরে পেলেন নুরুল আবছার

ইকবাল বদরী : একজন বিরল সমাজ সেবক

জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ স্কাউট শিক্ষক কোরক বিদ্যাপীঠের আনচারুল করিম

সাগরপাড়ের শিশুদের নিরাপত্তায় পদক্ষেপ নেয়া হবে

সোমবার স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন কক্সবাজারের শহীদ জাফর আলম

ঈদগাঁও পল্লী বিদ্যুতের সাব জোনাল অফিসকে জোনালে উন্নতিকরন

আমিরাতে রিহ্যাব ক্ষুদে আঁকিয়ে সিরিজের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা

দল হিসেবে জামায়াতের বিচার: সংশোধিত আইনের খসড়া মন্ত্রিপরিষদে