দেশের প্রথম ‘ডিজিটাল আইল্যান্ড’ মহেশখালী উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ফরিদুল আলম দেওয়ান/হারুনর রশিদ, মহেশখালী:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বর্তমান বিশ্বের  অাধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সুযোগ সুবিধা বাংলাদেশের প্রত্যন্ত গ্রামীণ জনগোষ্ঠির দোরগোড়ায় পৌছে দিতে পর্যায়ক্রমে দেশের সব উপকূলীয় উপজেলাকে ডিজিটাল প্রযুক্তির আওতায় আনা হবে। এতে করে গ্রামের সাধারণ জন গোষ্ঠি ঘরে বসে উচ্চ গতির ইন্টানেট ব্যবহারের মাধ্যমে তথ্য প্রযুক্তি সমৃদ্ধ সব সেবা নিতে পারবে। তাছাড়া অাধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ শিক্ষা ব্যবস্থা, স্বাস্থ্য সেবা ও ই-বানিজ্যের সুযোগ পাবেন। তিনি গতকাল ২৭ এপ্রিল সকালে দেশের প্রথম ডিজিটাল অাইল্যান্ড হিসেবে ককস বাজারের মহেশখালী দ্বীপকে ডিজিটাল গিগা আইল্যান্ড উদ্বোধন ঘোষণা কালে গণভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দিয়ে একথা বলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি কোরিয়া,বাংলাদেশের গণভবন ও মহেশখালী থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দুশেশের নেতৃবৃন্দ অংশ গ্রহণ করে পরস্পর মত বিনিময় করেন। এতে মহেশখালীর অংশে অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করে তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদ পলক বলেছেন, বর্তমান সরকার দেশকে আধুনিক বিশ্বের অন্যান্য দেশের  সাথে তাল মিলিয়ে শিক্ষা চিকিৎসা ও ব্যাবসা বানিজ্যকে প্রযুক্তি সমৃদ্ধ করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল মহেশখালীকে ডিজিটাল আইল্যান্ড ঘোষণার মাধ্যমে যাত্রা শুরু করা হল। বিশ্ব এগিয়ে যাচ্ছে, আমাদের দেশও আধুনিক প্রযুক্তিতে এগিয়ে যাবে। আমরা পিছিয়ে থাকতে চাইনা। এজন্যে তিনি জনগণকে শেখ হাসিনার সরকারকে সহযোগীতায় ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহবান জানান।
কোরিয়ান টেলিকম (কেটি) প্রতিষ্ঠানের কারিগরি সহায়তায় প্রকল্পটি যৌথভাবে বাস্তবায়ন করছে বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম)।


ককস বাজারের জেলা প্রশাসক মো: আলী হোসেন বলেন, প্রায় ২২ কোটি ৩৫ লাখ ৮১ হাজার টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্পের কাজ আগামী ২০১৮ সালের ৩০ জুনের মধ্যে শেষ হবে।
প্রাথমিক ভাবে মহেশখালী পৌরসভা এবং উপজেলার ছোটমহেশখালী ও বড়মহেশখালী ইউনিয়নের ২৫টি প্রতিষ্ঠানকে এই প্রকল্পের আওতায় আনা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সব ইউনিয়নকে প্রকল্পের আওতায় আনা হবে। ইতিমধ্যে ১২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দুটি মাদ্রাসা, চারটি স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও কমিউনিটি ক্লিনিক, চারটি সরকারি দপ্তরসহ ওই ২৫টি ভবনে সংযোগ দেওয়া হয়েছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে মহেশখালীর মোট ৪ লক্ষ জনসংখ্যার ৩০ শতাংশ উচ্চগতির ইন্টারনেট এবং প্রযুক্তি সুবিধা পাবে।
মহেশখালী কুতুবদিয়ার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক বলেন, মহেশখালী দ্বীপকে ডিজিটাল আইল্যান্ড ঘোষণা করায়, এদ্বীপের জনগণ প্রযুক্তি সমৃদ্ধ শিক্ষা, জনস্বাস্থ্য, ব্যবসা বানিজ্যে সুযোগ সুবিধা পাবে। তিনি এজন্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে ককস বাজার সদরের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল সহ স্থানীয় জেলা ও উপজেলা আওয়ামীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

হিজড়াদের ৮ বিভাগে ৮টি সংরক্ষিত আসন দাবী

৩০ নভেম্বরের মধ্যে বিনা জরিমানায় আয়কর রিটার্ন জমা দেয়া যাবে

চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে পুনরায় মাল্টি চ্যানেল স্লিপওয়ে নির্মাণ শুরু

স্কুল,কলেজ ফাঁকি দিয়ে শিক্ষার্থীরা কি করে দেখার আহবান মেয়র নাছিরের

পল্টন থানার তিন মামলায় মির্জা আব্বাস ও আফরোজা আব্বাসের আগাম জামিন

মহেশখালীতে বন্দুক ও কাতুর্জসহ মানবপাচার মামলার আসামী গ্রেফতার

চকরিয়া থানার আধুনিক দৃষ্টি নন্দন ভবন উদ্বোধন করলেন আইজিপি

অধ্যক্ষ আবদুল হক একটানা তিনবার সেরা প্রতিষ্ঠান প্রধান হলেন

প্রাথমিকে ‘কমন প্রশ্নে’ সহজ পরীক্ষা

আবদুর রহমান বদি কি নির্বাচন করতে পারবেন ?

পুলিশের আইজি এখন কক্সবাজারে

খরুলিয়ায় পিক-আপ সিএনজি ও বাসের ত্রিমুখী সংঘর্ষ

টেকনাফে কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত

দেশে ১৬৬৬ জন মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত কয়েদীর ফাঁসি হাইকোর্টে অনুমোদনের অপেক্ষায়

বিএনপি’র মনোনয়ন প্রার্থীদের সাক্ষাতকার আজ রোববার থেকে শুরু

দুবাইয়ে সেরা গীতিকারের সম্মাননা পেলেন নাটোরের মেয়ে সোহানী

আজ চকরিয়া আসছে আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী

পেকুয়ায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন!

তাহলে কী জাফর-আশেক-কানিজ-বদি পাচ্ছেন নৌকার টিকেট!

ইসলামাবাদে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় যুবক নিহত