ধর্ষকের বিচার চেয়ে চিরকুট রেখে তরুণীর আত্মহত্যা

ডেস্ক নিউজ:
দাখিল পরীক্ষার ফলাফল যাই হোক, একটি কলেজে ভর্তি হওয়ার ইচ্ছা ছিল দরিদ্র পরিবারের মেয়ে রুমি আক্তারের (১৫)। বাবা-মায়ের স্বপ্নও ছিল তাই।

কিন্তু তিন বখাটে তছনছ করে দিয়েছে রুমি ও তার পরিবারের সব স্বপ্ন। মৃত্যুর আগে রুমির হাতের লেখা চিরকুটেও ছিল তার স্বপ্ন, ক্ষোভ, হতাশা ও প্রতিবাদের কথা।

তিন ধর্ষকের দ্বারা পাশবিক নির্যাতনের পর রুমি বাবা-মায়ের উদ্দেশ্যে লেখা চিরকুটে বলেন, ‘তিন হায়েনা মিলে আমাকে নির্যাতন করেছে, তাই নিজেই আমি আমার জীবন শেষ করে দিলাম।’

গতকাল মঙ্গলবার রাতে জেলার মুরাদনগর উপজেলার নবগঠিত বাঙ্গরা বাজার থানাধীন সীমানারপাড় গ্রামে এ রোমহর্ষক ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে বুধবার থানা পুলিশ ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে দুপুরে ময়নাতদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সন্ধ্যায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি।

জানা গেছে, জেলার মুরাদনগর উপজেলার সীমানারপাড় গ্রামের আবুল কাশেমের কন্যা রুমি আক্তার সম্প্রতি দাখিল পরীক্ষা শেষে ফলাফলের জন্য অপেক্ষায় ছিলেন। ফলাফল প্রকাশের পর তার ইচ্ছা ছিল কলেজে ভর্তি হওয়ার।

তার মা নাজমা আক্তার সাংবাদিকদের জানান, বেশ কিছুদিন ধরে এলাকার বাবু, সাকিব, আক্তার হোসেনসহ কয়েকজন বখাটে তার মেয়েকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিল।

পরিবারের ধারণা, রাতে রুমি বাসার বাইরে বাথরুমে গেলে সেখানে ওঁৎ পেতে থাকা তিন বখাটে তাকে উঠিয়ে নিয়ে বাড়ির পাশে ধর্ষণ করে।

বুধবার সকালে বাড়ির পাশের একটি গাছের সঙ্গে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় রুমির ঝুলন্ত মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়। আত্মহত্যার আগে স্থানীয় তিন যুবক কর্তৃক তাকে পাশবিক নির্যাতন ও তারা তার মৃত্যুর জন্য দায়ী বলে উল্লেখ করে একটি চিরকুট লিখে রেখে গেছেন রুমি।

চিরকুটে উল্লেখ করা হয়, ‘বাবা আমার মৃত্যুর জন্য যারা দায়ী আপনি তাদের কাউকে ছাড় দেবেন না। মা-বাবা আমি বেঁচে থেকে জীবনে ক্যারিয়ার গঠন করবো বলে ইচ্ছা ছিল, কিন্তু আমার জীবনে তা আর হলো না, কারণ আক্তার, শাকিব ও বাবু এই তিনজন মিলে আমাকে নির্যাতন করেছে। তাই আমি আমার নিজের জীবন নিজে শেষ করে দিয়েছি, যারা আমার মৃত্যুর জন্য দায়ী তাদের কাউকে ছাড়বেন না বাবা। ১১ তারিখ মঙ্গলবার রাতে আমি এই তিন হায়েনাদের হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছি।’

এদিকে ধর্ষকরা এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয়রা এ বিষয়ে সরাসরি কেউ মিডিয়ায় বক্তব্য দিতে রাজি হয়নি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার লোকজন জানান, চিরকুটে লেখা তিন বখাটে যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই ঘটনার প্রকৃত রহস্য বের করা সম্ভব হবে। কিন্তু প্রভাবশালী একটি মহল এই ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে রুমির পরিবারকে চাপ দিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে, রুমির মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন রুমির সহপাঠীরা। তারা জানান, মৃত্যুর আগে কেউ কোনো দিন কারো বিরুদ্ধে মিথ্যা কথা লিখে যায় না, চিরকুটে থাকা বখাটেদের আটক করলেই প্রকৃত রহস্য বেরিয়ে আসবে।

এ বিষয়ে বিকেলে বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন মুঠো ফোনে জানান, তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমেকের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের লিখে যাওয়া ও উদ্ধারকৃত চিরকুটে যেসব তথ্য রয়েছে তা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। এদিকে ঘটনার পর থেকে ওই তিন যুবক এলাকায় নেই বলেও দাবি করেছেন ওসি।

cbn

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ২৭

পেকুয়ায় সংগ্রামের জুমে চলছে বালি উত্তোলন

B a n g a b a n d h u : The epic poet of politics

সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতির উপর হামলার প্রতিবাদে জেলা ছাত্রলীগের মিছিল-সমাবেশ

দৈনিক সৈকত সম্পাদকের পিতা হাবিবুর রহমানের ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

কক্সবাজার জেলা জয় বাংলা তথ্য-প্রযুক্তি লীগের আহবায়ক তুহিনের বিবৃতি

আজ শুভ জন্মাষ্টমী: কক্সবাজারে নানা আয়োজন

কক্সবাজার ইনার হুইল ক্লাবের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

টেকনাফে যুবককে তুলে নিয়ে হত্যা করলো রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা

সব ধরনের মতামত প্রকাশের নিরাপত্তা আছে?

চীন বলেছে মধ্যস্থতার দায়িত্ব নিয়েছি : মায়ানমার কিন্তু মুখ খুলছেনা

যে মসজিদ নির্মাণে কাজ করে ২ লাখ ১০ হাজার শ্রমিক

সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশের জন্য কাজ করতে হবে

জেলা আ.লীগের চিকিৎসা ক্যাম্প শুক্রবার, চিকিৎসা পাবে ৫হাজার মানুষ

চকরিয়ায় দুই হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল আগুনে পুড়ে ধ্বংস

নিরহঙ্কার জীবন : মানবিক উৎকর্ষের চাবিকাঠি

JOB VACANCY ANNOUNCEMENT – HumaniTerra International (HTI)

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে সদ্যবিবাহিত যুবকের মৃত্যু ইসলামাবাদে

আগামী ১০ বছরে আপনি মারা যাবেন কিনা জানা যাবে ব্লাড টেস্টে!