বিশেষ প্রতিবেদক:
ঝিলংজা ইউনিয়নের পশ্চিম মুক্তারকুল মৃত মো: খলিল সিকদারের চতুর্থ পুত্র ছুরত আলমমের বিরুদ্ধে দিন দুপুরে অস্ত্র ও ধারালো কিরিছ নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আপন বড় ভাই ফরিদের বাড়িতে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে।৮ই এপ্্িরল দুপুর ১২টার সময় ছুরত আলম ও তার দুই পুত্র মিলে ফরিদের বাড়িতে আক্রমন করে বলে জানা গেছে। এসময় ফরিদ বেচেঁ গেলেও ফরিদের বাড়িতে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করায় বাড়ি ও আসবাবপত্রের যথেষ্ট ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাংলাবাজার এখন থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

ফরিদ অভিযোগ করেন, ছুরত আলম অবৈধ জাল দলিল তৈরি করে দীর্ঘদিন ধরে তার বসতবাড়ি, ভিটা, দোকানঘর অবৈধ দখলের চেষ্টা করে আসছিল এ ব্যাপারে কক্সবাজার মডেল থানায় ছুরত আলম কে প্রধান আসামী করে একাধিক মামলা করা হয়েছে। জি.আর ৪৪৪/০৮ নং মামলায় ছুরত আলমকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। পরবর্তীতে জামিনে বের হয়ে আবারো হত্যার উদ্দশ্যে হামলা চালালে পুনরায় মামলা করেন ফরিদ আলমের পুত্র মোহাম্মদ আলম। যার মামলা নং জি.আর ৬১৫/১০। এরপরেও থেমে নেই সন্ত্রাসী ছুরত আলম বার বার হামলা ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিল বড় ভাই ফরিদ আলমকে। সেই সূত্রে গত ৮ই এপ্রিল রোজ শনিবার ছুরত আলম ও তার দুই পুত্র পরিকল্পিতভাবে অস্ত্রসহ এই হামলা চালায়।

আহত ফরিদ আলম জানান, সন্ত্রাসী ছুরত আলমের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। বার বার সন্ত্রাসী ছুরত আলমের হামলায় তিনি অধিক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন ভেঙ্গে পড়েছেন মানসিকভাবে। সন্ত্রাসীরা এখনো হুমকি দিচ্ছে বলে তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এমতাবস্থায় তিনি প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু তদন্ত ও সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তুমুলক শাস্তি দাবি করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •