উন্নত চিকিৎসা নিতে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদকে থাইল্যান্ডের ব্যাংককের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
তার সঙ্গে রয়েছেন একমাত্র ছেলে রাহগির আল মাহি সাদ এরশাদ ও সাদের স্ত্রী মাহিমা এরশাদ।

এর আগে শনিবার সন্ধ্যায় (৫ নভেম্বর) বাংলাদেশ থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে তারা ব্যাংককের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। রওশন এরশাদকে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে ১০টার দিকে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রওশন এরশাদের ব্যক্তিগত সহকারী মামুন হাসান এই খবর নিশ্চিত করেছেন। সাদ এরশাদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে ব্যাংককে পৌঁছান রওশন এরশাদ। এরপর তাকে বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ফুসফুসের জটিলতা নিয়ে গত ১৪ আগস্ট রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি ছিলেন রওশন এরশাদ। তিনমাস ধরে সেখানেই চিকিৎসাধীন তিনি। শুরুতে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। পরে অবস্থার উন্নতি হলে কেবিনে আনা হয়।

গত ২০ অক্টোবর অবস্থার অবনতি হলে আবারো আইসিইউতে নেয়া হয়। বেশ কিছুদিন আগে থেকেই উন্নত চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকরা তাকে দেশের বাইরে নেয়ার পরামর্শ দিয়ে আসছিলেন। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থা বিবেচনায় এত দিন সেটা সম্ভব হয়নি।