মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু:
আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে রামুর কচ্ছপিয়ায় ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীক পেতে জোর লড়াই চলছে। তৃতীয় দফায় আগামী ১১ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই চেয়ারম্যান প্রার্থীরা লবিং করছে এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের ক্ষমতাসীন দলের র্শীষ নেতাদের নিয়ে বর্তমানে অবস্থান করছে ঢাকায়।

এদিকে উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আবু মোঃ ইসমাইল নোমান শক্তিশালী প্রার্থী হিসাবে মাঠে রয়েছে। তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন। তবে নৌকা প্রতীকের জন্য ৬ জন প্রার্থী জোর লবিং করছে বলে একটি সূত্রে খবর পাওয়া গেছে। কিন্তু তারা নৌকা না পেলে নির্বাচন থেকে বিরত থাকবেন বলে এমন কথাও জানা গেছে। ১১ নভেম্বর এই নির্বাচনের দলীয় ফরম সংগ্রহ করেছেন সাবেক চেয়ারম্যান ও গত বার নৌকা প্রতীক নিয়ে পরাজিত আওয়ামিলীগ নেতা নুরুল আমিন কোম্পানি, ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ সভাপতি জাকের আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মনজুরুল ইসলাম, ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক এম সেলিম, জয়নাল আবেদীন মেম্বার, শ্রমিক লীগের সভাপতি আবু তালেব সিকদার।

জানা যায়, সম্ভাব্য প্রার্থীর মধ্যে নুরুল আমিন কোম্পানি কক্সবাজার জেলা আওয়ামিলীগের সাথে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। এম সেলিম, জয়নাল আবেদীন মেম্বার, নজরুল ইসলাম মেম্বর,আবু তালেব সিকদার কক্সবাজারের জনপ্রিয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমলের আস্থাভাজন হিসাবে পরিচিত। অপরদিকে রামু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামিলীগের সভাপতি সাংসদ কমলের বড় ভাই সোহেল সরওয়ার কাজলের আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিত ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি জাকের আহমদ মেম্বার ও সাধারণ সম্পাদক মনজুরুল ইসলাম বলে একটি সূত্রে জানা যায়। তবে যেই প্রার্থী দলীয় মনোনয়ন পাবে তার পক্ষে কাজ করার ঘোষনাও দিয়েছেন তারা জেলা আওয়ামিলীগের কাছে। এ ৭ জনের মধ্যে সর্বশেষ কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি এ অপেক্ষায় ভোটাররা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •