মো. নুরুল করিম আরমান, লামা:
রাস্তার ওপর গরু চরানোকে কেন্দ্র করে বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ভুক্তভোগী মো. নুরুল আলম বাদী হয়ে ৮জনের নাম উল্লেখসহ আরো ২-৩ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে এ অভিযোগ করা হয়।
অভিযোগে উল্লেখিতরা হলেন- শিশুপাড়ার বাসিন্দা মৃত রহমত আলীর ছেলে মো. বাবুল মিয়া (২৮), মো. মুরাদ মিয়া (২৫) ও জয়নাল আবেদীন (৪৬), জয়নাল আবেদীনের স্ত্রী গুলজার বেগম (৩৮), মেয়ে আঁখি আক্তার (২১), সোনি আক্তার (২৫), বাবুল মিয়ার স্ত্রী মুন্নী আক্তার (২৩), মৃত রহমত আলীর স্ত্রী দিলছুফা বেগম (৫৫)। গত শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের ওমর আলী পাড়ায় শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে সরকারী রাস্তার ওপর গরু চড়ানোকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ৭জন আহত হন। আহতরা হলেন- ওমর আলী পাড়ার বাসিন্দা নুরুল আলমের স্ত্রী হাফছা বেগম (৩৫), ছেলে সরোয়ার জাহান খোকন (১৫), কামাল উদ্দিনের স্ত্রী আয়েশা বেগম (২৮), জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী নুর জাহান বেগম (৩৬), নুরুল আলমের স্ত্রী আবিদা বেগম (২৭), মৃত রহমত আলীর ছেলে মুরাদ (২৮) ও মুরাদের ভাবী গুলজার বেগম (৩৫)।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ওমর আলী পাড়ার বাসিন্দা সরোয়ার জাহান খোকন ও তার মা হাফছা বেগম শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে বাড়ীর পাশের চলাচলের রাস্তার উপর গরু চড়াতে যান। এ সময় পাশের মৃত রহমত আলীর ছেলে মুরাদ তাদেরকে গরু চড়াতে নিষেধ করেন। নিষেধ উপেক্ষা করে সরোয়ার জাহান খোকন ও তার মা হাফছা বেগম গরু চড়াতে গেলে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটির হয়। এক পর্যায়ে মুরাদ ও তার ভাবীসহ ১০-১১জন সংঘবদ্ধ হয়ে সরোয়ার জাহান খোকন ও তার মা হাফসা বেগমের ওপর হামলা শুরু করেন। এরপর দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে নারীসহ ৭জন আহত হন। খবর পেয়ে স্থানীয়রা আহতদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করেন অভিযুক্ত মুরাদসহ অন্যরা।

আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে দাযিত্বরত চিকিৎসক অসীম বড়ুয়া বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় আহত সরোয়ার জাহান খোকন, আয়েশা বেগম, নুর জাহান ও আবিদা বেগমের অবস্থা আশঙ্কজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আলীকদম থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছির উদ্দিন জানান, দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় নুরুল আলম নামের এক ব্যক্তি লিখিত অভিযোগ করেছেন। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •