পেকুয়া প্রতিনিধি:

আসন্ন ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার টৈটং ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী জাহেদুল ইসলাম ছাড়াও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী সাহাব উদ্দিন দলীয় প্রতিক হাতপাখা নিয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছেন।

এছাড়াও দলীয়ভাবে ধানের শীষ প্রতিক না দিলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে চেয়ারম্যান পদে অংশ নিচ্ছে বিএনপিপন্থি মোসলেম উদ্দিন (চশমা), আওয়ামীপন্থি এম. শহিদুল্লাহ (ঘোড়া), ব্যবসায়ী নুরুল আমিন (মোটরসাইকেল), কপিল উদ্দিন (আনারস) ও নৌকার প্রার্থী জাহেদুল ইসলাম চৌধুরীর স্ত্রী শামীমা নাছরিন সায়মা(টেলিফোন)।

ইতোমধ্যে ভোট প্রার্থনায় প্রতিটি বাড়ি বাড়ি যাচ্ছে প্রার্থীরা। শেষমূর্হতে জমেও উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণা।

নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে গিয়ে নৌকার প্রার্থী জাহেদুল ইসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি ভঙ্গ করে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোসহ ১০টির অধিক অভিযোগে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মোটর সাইকেল প্রতিকের নুরুল আলম।

গতকাল পেকুয়া উপজেলা রির্টানিং কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগটি দায়ের করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল আমিন।

অভিযোগগুলো হল, নৌকার প্রার্থীর বাড়ি সংলগ্ন ২শ গজের ভিতর দুইটি কেন্দ্রের রয়েছে। যা সুষ্ঠু ভোটের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে।
তার নির্বাচনী ক্যাম্পও রয়েছে এই দুইটি কেন্দ্রের আশে পাশে। যার ভোট ছিনতাইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে এই দুটি কেন্দ্রে।

৪নং ওয়ার্ডের ভােট কেন্দ্র বনকানন নুরানী মদ্রাসা ৫০ গজের মধ্যে নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।
৬নং ওয়ার্ড ও ৮নং ওয়ার্ড ৫০ গজের মধ্যে নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।

৭নং ওয়ার্ডের রমিজ পাড়া, মৌলভী পাড়া, ৮নং ওয়ার্ডের বটতলি ও ৯নং ওয়ার্ডের ধনিয়াকাটায় কেন্দ্র সংশ্লিষ্ট জায়গায় ক্যাম্প স্থাপন করে ভীতি ছড়াচ্ছে ভোটারদের মাঝে।

এছাড়াও আচরণবিধি ভঙ্গ করে টইটং ইউনিয়ন পরিষদে বিচারিক আদালতে নির্বাচনী কর্মী সভা করেছে আচরণবিধি লঙ্ঘন করা হয়েছে। এছাড়াও মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টের মাধ্যমে গান বাজনা ও নির্বাচনী চিত্র প্রদর্শন করে চলছে।

যার কারণে সুষ্ঠু নির্বাচনে বাধা ভােটারদের ভােটদানে বাধা ও
বহিরাগত লােক এলাকায় জড়ো করেছে। এইভাবে অবস্থান নির্বাচন হলে নির্বাচন কোনদিন শান্তিপুর্ণ গ্রহণযােগ্য হবেনা বলেও লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন। তিনি দ্রুত
আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েনসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনার দাবীও জানান।

স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল আমিন বলেন, নৌকার প্রার্থী জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী নির্বাচনে প্রভাব কাঠানো শুরু করেছে। ২০ তারিখ ভাড়াটি দিয়ে ভোট ডাকাতির চেষ্টা করতেছে। যার কারণে প্রতিটি কেন্দ্রের আশেপাশে নির্বাচনী ক্যাম্প বসিয়ে ভীতি সৃষ্টি করে চলছে। প্রশাসনকে সঠিকভাবে তদারকি করার দাবী জানাচ্ছি।

টৈটং ইউপি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ ইরফান উদ্দিন লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •