শাহেদ মিজান, সিবিএন:
দলীয় সিদ্ধান্ত না মেনে পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় কক্সবাজার জেলার ১১জন চেয়ারম্যান  প্রার্থীকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার করেছে আওয়ামী লীগ।

১৫ সেপ্টেম্বর দলের কেন্দ্রীয় হাই কমান্ডের নির্দেশনা মোতাবেক জেলা আওয়ামী লীগ তাদের বহিস্কার করেছে। একই সাথে দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় টেকনাফ ও মহেশখালীতে দুইজন আওয়ামী লীগ নেতাকেও বহিস্কার করা হয়েছে।

বহিস্কার হওয়া বিদ্রোহী প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন, টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী এবং বর্তমান চেয়ারম্যান নূর হোসেন, হ্নীলার কামাল উদ্দীন আহমদ, মহেশখালীর কুতুবজোমের বর্তমান চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন খোকন, মাতারবাড়ির বর্তমান চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ ও সাবেক চেয়ারম্যান এনামুল হক রুহুল, মাস্টার রুহুল আমিন, আবদুস সাত্তার, হোয়ানকের আওয়ামী লীগ সভাপতি মীর কাসেম, ওয়াজেদ আলী মুরাদ, কুতুবদিয়ার উত্তর ধূরংয়ের সিরাজদৌলাহ এবং পেকুয়ার টৈটংয়ের শহীদুল্লাহ।

অন্যদিকে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থায় নেয়ায় হোয়ানক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাফর আলম জফুর ও টেকনাফের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহামদকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এম এ মনজুর জানিয়েছেন, দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সাময়িক বহিস্কারের পর তাদেরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। নোটিশের সন্তোষজনক জবাব না দিলে চূড়ান্তভাবে বহিস্কারের জন্য কেন্দ্রীয় হাইকমান্ডের কাছে সুপারিশ করবে জেলা আওয়ামী লীগ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •