আব্দুস সালাম,টেকনাফ :
কক্সবাজারের টেকনাফে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিচতলা দখল করে ইউপি নির্বাচনের ক্যাম্প করার অভিযোগে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও ইউপি সদস্য পদপ্রার্থীকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে।সোমবার(১৩সেপ্টেম্বর) বিকালে টেকনাফ সদর ইউনিয়নে এ অভিযান চালান সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাচন আচরণবিধি প্রতিপালনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ এরফানুল হক চৌধুরী, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ বেদারুল ইসলাম ও টেকনাফ মডেল থানা পুলিশ।
দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন টেকনাফ সদর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু ছৈয়দ ও ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী রশিদ আলম।
স্থানীয়রা জানান, কয়েক দিন ধরে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের কচুবুনিয়া এমপি বদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি ভবনের নিচতলায় চেয়ার পেতে ও পোস্টার টাঙিয়ে নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করা হয়। ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে করোনা পরিস্থিতির কারণে বিদ্যালয়টি বন্ধ ছিল। তবে গতকাল রোববার থেকে সারা দেশের সব স্কুল-কলেজের সঙ্গে এটিও খুলেছে। এই বিদ্যালয়ের ২৫১ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন বলেন, স্কুল বন্ধ থাকাকালীন নির্বাচনী ক্যাম্প করলেও বর্তমানে স্কুল খোলা রয়েছে। এ সময় স্কুলকে সরকারি দলের প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্প হিসেবে ব্যবহার করা ক্ষমতার অপব্যবহার। এতে করে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় ব্যাঘাতের সৃষ্টি হচ্ছে।
দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন টেকনাফ সদর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু ছৈয়দ ও ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী রশিদ আলম।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ‘স্কুল ভবনের নিচতলায় একজন চেয়ারম্যান প্রার্থী ও আরেকজন ইউপি সদস্য প্রার্থী কিছু টেবিল পাতলে ও পোস্টার টাঙালে স্থানীয় লোকজন বসে আড্ডা দিতেন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবর এ বিষয়ে অভিযোগ করেছেন বলে শুনেছি।’
নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবু ছৈয়দ বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ ছিল। এর মধ্যে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা হওয়ায় আমার সমর্থক এলাকার কিছু যুবক স্কুলের নিচতলায় কিছু চেয়ার পেতে ও পোস্টার টাঙিয়ে সেখানে আড্ডা দিতেন বলে তিনি শুনেছেন।
টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ এরফানুল হক চৌধুরী বলেন, ২০ সেপ্টেম্বর টেকনাফ সদর ইউপির ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে। নির্বাচনে সরকারি প্রতিষ্ঠান অবৈধভাবে দখল করে নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করার অভিযোগে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবু ছৈয়দকে পাঁচ হাজার ও ইউপি সদস্য প্রার্থী রশিদ আলমকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া একাধিক মাইক ব্যবহার করে প্রচারণা চালানোর অভিযোগ মোটরসাইকেল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী জিয়াউর রহমান জিহাদকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে নির্বাচনী ক্যাম্প উচ্ছেদ করা হয়েছে। পাশাপাশি অভিযুক্ত প্রার্থীদের সতর্ক করা হয়েছে। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বেদারুল ইসলাম বলেন, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২০ সেপ্টেম্বর টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা, হোয়াইক্যং সাবরাং ও টেকনাফ সদর চার ইউপির ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে। সাগর উত্তাল থাকায়
সেন্টমার্টিন ইউপি নির্বাচন বন্ধ রয়েছে।
অন্যদিকে মেয়াদ পূর্ণ না হওয়ায় বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন এ মুহূর্তে হচ্ছে না।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •