সিবকিএন ডেস্ক:
বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবাসনে ইউরোপীয় ইউনিয়ন মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বাংলাদেশে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দূত রেনসি টিরিংক রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে বিদায়ী সাক্ষাৎ করতে গেলে রাষ্ট্রপতি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্রেস সচিব বলেন, ‘সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রপতি দায়িত্ব পালনকালে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও বাংলাদেশের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার হওয়ায় বিদায়ী দূতকে ধন্যবাদ জানান।’

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘ইউরোপীয় ইউনিয়ন বাংলাদেশের অন্যতম উন্নয়ন অংশীদার। বাণিজ্য, বিনিয়োগ, অভিবাসন, যোগাযোগ, জলবায়ু পরিবর্তনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহযোগিতা বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রাখছে।’

প্রেস সচিব জানান, সাক্ষাতের সময় রাষ্ট্রপতি আশা করেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশগুলো নীতিনির্ধারণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও ভূ-রাজনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নেবে। রাষ্ট্রপতি এসডিজি অর্জনে সহযোগিতা দেওয়ায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি ধন্যবাদ জানান এবং আগামী দিনেও এ সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

প্রেস সচিব বলেন, ‘মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা প্রদানের জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি আশা করেন, রোহিঙ্গাদের স্বদেশে প্রত্যাবাসনে ইউরোপীয় ইউনিয়ন মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখবে।’

ইউউ’র বিদায়ী দূত করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলা ও অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রশংসা করেন। তিনি বাংলাদেশে দায়িত্ব পালনকালে সার্বিক সহযোগিতার জন্য রাষ্ট্রপতির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

রাষ্ট্রপতি কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এসএম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন এবং সচিব (সংযুক্ত) ওয়াহিদুল ইসলাম খান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •