ইমাম খাইর, সিবিএন:
করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর তথা ৫৪৪ দিন পর খুললো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দ্বার।

আজ রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) থেকে শারীরিক উপস্থিতিতে শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনার জন্য আগে থেকেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রস্তুত করার নির্দেশনা ছিল। সে অনুযায়ী প্রস্তুতিও নেওয়া হয়েছে। শ্রেণি কার্যক্রম প্রস্তুতি ছাড়াও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের বরণ করতে সাজানো হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শ্রেণিকক্ষ।

সকালে দেখা গেছে, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোর ৭টা থেকে শিক্ষার্থীরা আসতে শুরু করে। প্রবেশ পথে তাদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করে স্কুল প্রাঙ্গণে ঢোকানো হয়। প্রধান শিক্ষক মো. নাছির উদ্দিন নিজেই স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়টি তদারক করেছেন।

প্রায় দেড় বছর পর নিজেদের স্কুলের আঙ্গিণা দেখে অনেক শিক্ষার্থী আনন্দিত, উচ্ছ্বসিত। শিক্ষকদের দেখে তারা উদ্বেলিত।

প্রধান শিক্ষক মো. নাছির উদ্দিন বলেন, যথারীতি স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সাড়ে ৭টায় স্কুল কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথম শিফটে ২০২১ সালের এসএসসি ব্যাচের অন্তত দুইশতাধিক শিক্ষার্থী ক্লাসে উপস্থিত ছিল। দ্বিতীয় শিফটে ২০২২ এর ব্যাচ ক্লাস চলছে। দীর্ঘদিন বন্ধের পর প্রথম দিনের ক্লাসে শিক্ষার্থীরা খুবই আনন্দিত।

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে গেল বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সবধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সংক্রমণ কিছুটা কমে আসায় প্রথম ধাপে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলেছে আজ থেকে।

শিক্ষার্থীদের তাপমাত্রা পরীক্ষা করেন কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাছির উদ্দিন।

খোজখবর নিয়ে জানা গেল, আজ স্কুল খোলবে। তাই আগেভাগেই শ্রেণি, অফিস কক্ষ থেকে শুরু সব কিছু ধোয়েমুছে পরিস্কার করে রাখা হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের আগমন উপলক্ষে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে সাজসাজ রব বিরাজ করছে। বিশেষ করে দুই শিফটের স্কুলগুলোতে সকাল ৮টার আগেই শিক্ষার্থীরা নতুন স্কুল ড্রেস পরে অভিভাবকের হাত ধরে উপস্থিত হতে দেখা গেছে।

সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রাথমিকে প্রতিদিন সর্বোচ্চ দুইটি শ্রেণির পাঠদান অনুষ্ঠিত হবে। সে অনুযায়ী একটি রুটিনও প্রণয়ন করা হয়েছে। রুটিন অনুযায়ী, আজ রবিবার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির সঙ্গে তৃতীয় শ্রেণির ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •