নুরুল কবির, বান্দরবান:

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেছেন, সাংবাদিকরা তাঁদের বস্তুনিষ্ঠ লেখনীর মাধ্যমে সমাজ, সরকার ও রাষ্ট্রকে সহায়তা করতে পারে, তাদের মাধ্যমে সরকার দেশের একটা সার্বিক চিত্র অনুধাবন করে উন্নয়ন কর্মকান্ড ও ভুলগুলো শুধরে নিতে পারে। আর যখন সাংবাদিকরা পরিবেশ ও জীব-বৈচিত্র্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে অংশ নেয়, গাছ লাগানোয় এগিয়ে আসে, তখন মানুষ আশাবাদী হয়, উৎসাহ পায়, সাধারণ মানুষও গাছ লাগানোর প্রতি আগ্রহী হয়। বান্দরবানে সাংবাদিকদের গাছ লাগানো একটি অনন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

শুক্রবার সকালে শহরের রাজার মাঠে প্রেসক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পাবত্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, গাছ পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে, ফল, ফুল, কাঠ দেয়, বিপদের সময় গাছ বিক্রি করে বিপদ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। তিনি বলেন, বটবৃক্ষ বিশাল এলাকা জুড়ে ছায়া দেয়, এ গাছের ফল খেতে পাখির সমারোহ হয়, কিচিরমিচিরে মুখরিত হয়। বটবৃক্ষ লাগানোয় সত্যিই আমি খুশি হয়েছি।

বীর বাহাদুর আরও বলেন, সাংবাদিকদের ভূমিকার কারণে বান্দরবানের অনেক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন সহজ হয়েছে। এখানকার সমস্যাগুলোকে সঠিকভাবে তুলে ধরার মাধ্যমে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। বিগত সময়ে সাংবাদিকরা অনেক সমস্যার কথা তুলে ধরায় জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি সেসব সমস্যা সমাধানে ভূমিকা রাখতে পেরেছি। আগামীতেও বান্দরবানের সার্বিক উন্নয়নে সাংবাদিকরা অগ্রণী ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। এর আগে বান্দরবান সদর হাসপাতালে রোগীদের সেবায় নতুন এ্যাম্বুলেন্স প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে রাজারমাঠ সংলগ্ন পার্বত্যমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে সিভিল সার্জনের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে এই এ্যম্বুলেন্সের চাবি হন্তান্তর করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

এসময় তিনি বলেন, পর্যায়ক্রমে বান্দরবান হাসপাতাল আরো আধুনিক হবে। ভবিষ্যতে স্বাস্থসেবার ক্ষেত্রে বান্দরবান আরো একধাপ এগিয়ে যাবে। তিনি আরো বলেন, পাহাড়ে চিকিৎসাসেবা উন্নয়নে প্রায় উপজেলা হাসপাতালে এ্যম্বুলেন্স দেয়া হয়েছে। সদর হাসপাতালে এবার আরো একটি এ্যাম্বুলেন্স দেয়া হলো

বান্দরবান প্রেসক্লাব সভাপতি মনিরুল ইসলাম মনু’র সভাপতিত্বে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন ডা. অং সুই প্রু মারমা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) লুৎফুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দীন, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হক, মিলন চক্রবর্তী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকবৃন্দ। পরে বীর বাহাদুর রাজার মাঠের মুক্তমঞ্চের পাশে একটি বটবৃক্ষ রোপণ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •