সিবিএন ডেস্ক:
অপেক্ষাকৃত কম পরিচিত তালেবান নেতা মোল্লা হাসান আকুন্দ পরবর্তী আফগান সরকারের নেতৃত্বে আসতে পারেন। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি’র প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। আকুন্দ জাতিসংঘের সন্ত্রাসী তালিকা রয়েছেন।

গত ১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা আবদুল গনি বারাদারের নাম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শোনা যাচ্ছিলো। এরইমধ্যে নতুন করে জানা যাচ্ছে, সরকারপ্রধান হচ্ছেন মোল্লা হাসান আকুন্দ।

সূত্রের খবরের বরাতে এনডিটিভি’র প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আফগানিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেতে পারেন তালেবানের ‘লাইটওয়েট’ নেতা মোল্লা হাসান আকুন্দ। মোল্লা বারাদার ও মোল্লা ওমরের ছেলে মোল্লা ইয়াকুব মোল্লা হাসান আখুন্দের ডেপুটি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রধান নির্বাচিত হতে পারেন হাক্কানি নেটওয়ার্ক ও বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসের তালিকায় থাকা সিরাজ হাক্কানি।

এ ছাড়া তালেবানের শীর্ষ নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা ‘সর্বোচ্চ নেতা’ হতে পারেন বলেও প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

২০০১ সালে তালেবান সরকারের পতনের পর মোল্লা হাসান আকুন্দ পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে গঠিত তালেবানের নেতৃত্ব পরিষদ ‘কোয়েটা সুরা’র দায়িত্বে ছিলেন। এর আগে তালেবান শাসনামলে তিনি আফগানিস্তানের মন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •