সিবিএন ডেস্ক: তালেবানের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, আফগানিস্তানের ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। তিনি প্রতিবেশী তাজিকিস্তানে আশ্রয় নিয়েছেন। খবর বিবিসি ও আল জাজিরার।

পাঞ্জশিরের ন্যাশনাল রেসিসটেন্স ফ্রন্ট অব আফগানিস্তানে (এনআরএফ) যোগ দিয়েছিলেন সালেহ। এর আগে গুঞ্জন উঠেছিল যে, তিনি দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। কিন্তু গত সপ্তাহে তিনি একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে তিনি দেশ ছাড়ার কথা অস্বীকার করেন।

তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর আশরাফ ঘানির অবর্তমানে নিজেকে আফগানিস্তানের বৈধ তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট বলেও দাবি করেন সালেহ। সে সময় তিনি বলেন, ‘আফগানিস্তানের সংবিধান অনুসারে প্রেসিডেন্টের অবর্তমানে, পালিয়ে গেলে, পদত্যাগ করলে বা মৃত্যু হলে ভাইস প্রেসিডেন্ট তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট হয়ে যান। আমি এখনও দেশের ভেতরেই রয়েছি এবং আমিই বৈধ তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট। আমি সব নেতার কাছে সহযোগিতা ও সমর্থন চাই।’

এদিকে সোমবার পাঞ্জশির উপত্যকা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণের দাবি করেছে তালেবান। ফলে দেশটির সর্বশেষ এই অঞ্চলটিও এখন তালেবানের দখলে। রাজধানী কাবুল থেকে ১২৫ কিলোমিটার উত্তরে পাঞ্জশির উপত্যকায় টানা কয়েকদিন ধরেই তালেবানের সঙ্গে এনআরএফের সংঘর্ষ চলছে। তালেবানের পাঞ্জশির নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্টের দেশ ছাড়ার খবর সামনে এলো।

তালেবানের এক মুখপাত্র বলেন, এই জয়ের মাধ্যমে দেশের পুরো নিয়ন্ত্রণ এখন আমাদের হাতে।

তালেবান পাঞ্জশিরের পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার কথা বললেও এনআরএফ তাদের দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •