জাগোনিউজ:
আলোচিত ঢাকা বোট ক্লাবের সঙ্গে সম্পৃক্ততা নিয়ে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

তিনি বলেছেন, আমি বাংলাদেশের আইজিপি, পার্লামেন্ট সদস্য নই। পার্লামেন্ট নিয়ে কি আমার কথা বলা ঠিক হবে?

গত শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে দেওয়া বক্তব্যে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ আলোচিত বোট ক্লাব সরকারের অনুমোদন নিয়ে গড়ে উঠেছে কি না এবং পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) সরকারের অনুমতি নিয়ে এ ক্লাবের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন কি না, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে তা জানতে চান।

বিষয়টি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে বিবৃতি দাবি করে এমপি হারুন বলেন, বোট ক্লাবে নিয়মিত মদ্যপান করা হয়, তাস খেলা হয়, জুয়া খেলা হয়। এ রকম একটি ক্লাবে পুলিশপ্রধান সভাপতি কোনো আইনে থাকতে পারেন কি না।

ওই বক্তব্যের পর রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পুলিশ সদরদপ্তরে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকরা ঢাকা বোট ক্লাব প্রসঙ্গে সংসদে এমপি হারুনের বক্তব্য নিয়ে আইজিপির দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, ‘আমি তো পার্লামেন্ট মেম্বার না, পার্লামেন্ট নিয়ে কি আমার কথা বলা ঠিক হবে? যেগুলো পার্লামেন্টে আলোচনা হয়, সেগুলো পার্লামেন্টের ভেতরেই থাকে। আপনার ব্যক্তিগত কৌতূহল থাকলে সেটি ভিন্ন বিষয়। কিন্তু পার্লামেন্টের সংসদ সদস্য যে বক্তব্য দিয়েছেন, তার পাল্টা উত্তর আইজিপি দেবে না। আমি বাংলাদেশের আইজিপি, পার্লামেন্ট সদস্য নই। এ কারণে এটা শোভন নয়, যৌক্তিক নয়, আইনসম্মত নয়।

ওইদিন বোট ক্লাবে আইজিপির সম্পৃক্ততা নিয়ে সংসদে এমপি হারুন তার বক্তব্যে আরও বলেছিলেন, আমার জানা নাই, ৫০ বছরের ইতিহাসে, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর এ ধরনের কোনো ক্লাবে পুলিশের প্রধান সভাপতির দায়িত্ব বা এই রকম ক্লাব প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে দায়িত্ব পালন করেছেন।

সংসদে বিএনপির এমপির এ বক্তব্য গণমাধ্যমে এলে, এ নিয়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। সম্প্রতি চিত্রনায়িকা পরীমনির মাদককাণ্ড ও তাকে ধর্ষণচেষ্টাসহ বেশকিছু ঘটনায় ঢাকা বোট ক্লাবের নাম ব্যাপকভাবে আলোচনায় আসে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •