সিবিএন ডেস্ক:
এয়ার বাবল চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ-ভারত ফ্লাইট চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। ভারতের সিভিল এভিয়েশন অথরিটির ২৮ আগস্টের দেওয়া প্রস্তাবে সম্মতি জানিয়ে ৪ সেপ্টেম্বর থেকে ফ্লাইট চালুর অনুমতি দিয়েছে বেবিচক। নিয়মিত শিডিউল ফ্লাইট চালু না হওয়া পর্যন্ত এয়ার বাবল চুক্তির আওতায় ফ্লাইট চলবে।

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) সম্মতি জানিয়ে ভারতের সিভিল এভিয়েশনকে চিঠি দিয়েছে বেবিচক।

তবে ফ্লাইট চলাচল করলেও স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত বিধিনিষেধ দিয়েছে বেবিচক। ভারত থেকে বাংলাদেশে আসলে ১৪ দিন বাধ্যতামূলক ভাবে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। বাংলাদেশ আসার ৭২ ঘন্টার মধ্যে পিসিআর টেষ্ট করে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট থাকতে হবে। উড়োজাহাজের ধারণক্ষমতার ৯০ শতাংশ যাত্রী পরিবহন করতে হবে এয়ারলাইন্সগুলোকে।

ভারতের এসব প্রস্তাবে সম্মতি জানিয়ে দেশটির সিভিল এভিয়েশনকে চিঠি দিয়েছে বেবিচক। একই সঙ্গে ফ্লাইট ফ্রিকোয়েন্সি ৭টি থেকে বাড়িয়ে ১০টি করার প্রস্তাব দিয়েছে বেবিচক। এছাড়া এয়ারলাইন্স কর্মীদের সিমিউলেটর প্রশিক্ষণের জন্য বিজনেস ভিসা সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাবও করেছে বেবিচক।

এ প্রসঙ্গে বেবিচকের এক কর্মকর্তা বলেন, ভারতের সিভিল এভিয়েশন অথরিটির ২৮ আগস্টের তাদের শর্তের বিষয়ে জানিয়ে বেবিচকের কাছে চিঠি দিয়েছিলো। এখন এ প্রস্তাবে সম্মতি জানিয়ে ৪ সেপ্টেম্বর থেকে এয়ার বাবল চুক্তির আওতায় ফ্লাইটের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে। এখন ভারতের পক্ষ থেকে সম্মতি আসলেই এয়ারলাইন্সগুলো ফ্লাইট পরিচালনা করতে পারবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •