বিশেষ প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার মানিকপুর-সুরাজপুর ইউনিয়নের সুরাজপুর ইসলামিয়া হাফেজখানা ও এতিমখানায় এতিম শিক্ষার্থী ভর্তির নামে অবৈধভাবে সরকারি বরাদ্দের টাকা আত্মসাতের অভিযোগের মাদ্রাসা সুপার, চকরিয়ার সুরাজপুর- মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। সুরাজপুর ইসলামিয়া হাফেজখানা ও এতিমখানার শিক্ষার্থী (এতিম) আরিফুল ইসলামের পিতা নুরুল কাদের বাদী হয়ে কক্সবাজারের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্তের জন্য সিআইডিকে দায়িত্ব দিয়েছেন আদালত।
মামলার বাদী নুরুল কাদের অভিযোগ করেন, তাকে ২০১৩ সালে মৃত ঘোষণা দিয়ে চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম সাক্ষরিত ইউনিয়ন পরিষদ প্যাডে মৃত্যু সনদ ইস্যু করেন। একই সাথে ইউনিয়নের ৬৫জন জীবিত মানুষকে মৃত ঘোষণা করে অন্য আসামীদের যোগসাজশে গত ৬-৭ বছর ধরে এতিমদের জন্য সরকারি বরাদ্দকৃত প্রায় ৫০ লক্ষ আত্মসাৎ করেন।
মামলায় (সি.আর. মামলা নং-৯৫০) এ ১নং আসামি করা হয়েছে সুরাজপুর- মানিকপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার রফিকুল ইসলাম কাজলকে (৬৫), ২নং আসামি করা হয় সুরাজপুর ইসলামিয়া হাফেজখানা ও এতিমখানার পরিচালক ও সুপার মাওলানা আহাসান হাবীব পারভেজকে (৪২) এবং ৩নং আসামি সুরাজপুর- মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিমকে (৫৫)।
এবিষয়ে জানতে চাইলে সুরাজপুর- মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম দাবি করেন, তাঁর স্বাক্ষর জাল করেই এমন জালিয়াতি করা হয়েছে।
এবিষয়ে বক্তব্য জানতে মাদ্রাসা সুপার মাওলানা আহসান হাবীবের সাথে যোগাযোগ করা যায়নি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •