লামা প্রতিনিধি:

স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে জান্নাতুল মাওয়া (৩১) নামের এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। উপজেলার গজালিয়া ইউনিয়নের ব্রিকফিল্ড এলাকার খৃজ্জানুনা গ্রামে বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। জান্নাতুল মাওয়া খৃজ্জানুনা গ্রামের বাসিন্দা রেজাউল করিমের স্ত্রী। এর আগের দিন জসিম উদ্দিন (১৩) গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। সে আজিজনগর ইউনিয়নের ডিগ্রিখোলা গ্রামের বাসিন্দা তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, পারিবারিক বিষয় নিয়ে গত দুই দিন আগে গৃহবধূ জান্নাতুল মাওয়ার সাথে স্বামী রেজাউল করিমের ঝগড়া হয়। এর জের ধরে স্বামী রেজাউল করিম ক্ষিপ্ত হয়ে ঘর থেকে বের হয়ে বুধবার পর্যন্ত ফিরেনি। এতে অভিমান করে বুধবার বেলা ১১টার দিকে বিষপান করে জান্নাতুল মাওয়া। পরে স্বজনেরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এর আগে মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে আজিজনগর ইউনিয়নের ডিগ্রিখোলা গ্রামের বাসিন্দা মো. তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে জসিম উদ্দিন (১৩) গলায় ফাঁস দেন। পরে ঘরের ভিতর জসিম উদ্দিনের লাশ ঝুঁলতে দেখে উদ্ধার করে কাছাকাছি লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় স্বজনেরা। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক জসিম উদ্দিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, প্রাথমিক সূরতহাল শেষে গৃহবধূ জান্নাতুল মাওয়ার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বান্দরবান মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং কোন অভিযোগ না থাকায় কিশোর জসিম উদ্দিনের লাশ দাফনের জন্য স্বজনদের অনুমতি দেওয়া হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •