শাহেদুল ইসলাম মনির, কুতুবদিয়া:

স্বামীই নির্যাতনের মামলা করলেন স্ত্রীর বিরুদ্ধে আর সেই মামলায় কারাগারে যেতে হলো স্ত্রীকে। ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজারে দ্বীপ কুতুবদিয়া উপজেলায় ৷

স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ স্বামীকে দীর্ঘদিন ধরে স্ত্রী জোসনা আক্তার এবং তার ভাই মাহমুদুল করিমসহ বড় মেয়ে তাজমিন আক্তার দা, লাঠি দ্বারা মারধর এবং নানাভাবে নির্যাতন করেছেন৷ উপজেলার আজম কলোনি এলাকার মোঃ সেলিম আদালতে সি আর ৯০/২১ইং মামলা দায়ের করেন ৩৫ বছর বয়সি স্ত্রী জোসনা আক্তারের বিরুদ্ধে।

আদালত কুতুবদিয়া থানায় তদন্তের দায়িত্ব দিলে তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রায়হান উদ্দিন বিভিন্নভাবে তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

পরে স্বামীর করা মামলায় স্ত্রীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রেজাউল হক ৷

বাদীপক্ষের আইনজীবী মো. আইয়ুব হোছাইন জানান, বড়ঘোপ আজম কলোনীর বাসিন্দা মৃত মফিজ আলমের পুত্র মো. সেলিম (৪০ ) দীর্ঘদিন ধরে স্ত্রী জোসনা আক্তার নানাভাবে স্বামীকে নির্যাতন করেছেন৷

ছেলের সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেলিমের শ্যালক লাল ফকির পাড়ার মৃত আব্দু শুক্কুরের পুত্র মাহমুদুল করিমের পরিচালনায় স্ত্রী ও বড় মেয়ে তাজমিন আক্তার সেলিমের উপর দা, লাঠি দ্বারা মারধর করে।

পরে সেলিম বাদী হয়ে শ্যালক মাহমুদুল করিম, স্ত্রী জোসনা আক্তার ও মেয়ে তাজমিনকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত ওইদিনই মামলাটি আমলে নিয়ে আসামি জোসনা আক্তার এবং তার ভাই, মেয়ের বিরুদ্ধে সমন জারি করে।

সোমবার এই মামলায় মাহমুদুল করিম ও তার বড় মেয়ে তাজমিন আক্তার আদালতে উপস্থিত না থাকায় আদালত জোসনা আক্তারকে আবেদন নাকচ করে  কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •