বার্তা পরিবশেকঃ
করোনা পরিস্থিতিতে দেশের সকল ধরনের নির্বাচন বন্ধ রাখা হলেও কোন ধরনের নিয়ম-নীতিকে তোয়াক্কা না করে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন যাত্রী পরিবহন সার্ভিস বোট মালিক সমবায় সমিতি লিমিটেডের ” এডহক কমিটি গঠনকে” পূর্ণাঙ্গ কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন করা হয়েছে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। রেজিস্ট্রেশন কৃত সমিতির নির্বাচন প্রক্রিয়ার ক্ষমতা রয়েছে উপজেলা সমবায় সমিতির।
এ ব্যাপারে উপজেলা সমবায় কর্মর্তার অফিস কতৃপক্ষ নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পর্কে কোন ধরনের অবগত নেই বলে জানিয়েছেন।
এ অবৈধ নির্বাচন বাতিল চেয়ে উপজেলা সমবায় কর্মকর্তার বরাবরে আবেদন করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে টেকনাফ উপজেলা সহকারি সমবায় কর্মকর্তা শ্যামল বড়ুয়া জানান, টেকনাফ-সেন্টমার্টিন যাত্রী পরিবহন বোট মালিক সমিতির নির্বাচনের বিষয়ে সমবায় অফিসে কোনোভাবে অবহিত করা হয়নি। রেজিস্টারকৃত সমবায় সমিতির নির্বাচন প্রক্রিয়া উপজেলা সমবায় কার্যালয় থেকে মনিটরিং করা বিধান রয়েছে। করোনাভাইরাসের ক্রান্তিকালে সরকার যাবতীয় নির্বাচন স্থগিত রেখেছেন। এরমধ্যে কোন নির্বাচন হয়ে থাকলে সেইটি অবৈধ বলে গণ্য হবে।

মোট ভোটার সংখ্যা ৩৮ জন হলেও ভোট দিয়েছে ৩৯ জন। তৎমধ্যে অত্র সমিতির ভোটার ক্রঃ নং ১৮) বোটের এসবি ফাতেমা,মালিকের নাম মো. ইসমাইল, ক্রঃ নং ১৯) বোটের নাম এসবি ওসমান,মালিকের নাম আবু বক্কর ছিদ্দিক,ক্রঃ নং ২০) বোটের নাম এসবি রাসেল,মালিকের আমির আহমদ,ক্রঃ নং ৩৫) বোট নাই,মালিকের নাম বশির আহমদ,ক্রঃ নং ৩৮) বোট নাই,মালিকের নাম মো. আবছার ভোটধিকার প্রয়োগ করেননি।

সেন্টমার্টিন যাত্রী পরিবহন সার্ভিস বোট মালিক সমবায় সমিতি লিঃ এর সভাপতি রশিদ আহমদের আবেদন সূত্রে জানা যায়, অত্র সমিতির বর্তমান ব্যবস্থাপনা কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় কোনো রকম সরকারী অর্ন্তবর্তীকালীন কমিটি এবং নির্বাচন কমিটি অনুমোদন না নিয়ে সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষেদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও প্যানেল চেয়ারম্যান সরকারী আইনকে তোয়াক্কা না করে সমিতিতে অবৈধভাবে নির্বাচন করেছে। উক্ত অবৈধ নির্বাচনের ফলে অত্র সমিতির অর্থ আত্মসাতের সম্ভাবনা এবং সমিতিতে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হতে পারে। এমতাবস্থায় উপজেলা সমবায় দপ্তরকে বিষয়টি না জানিয়ে বেআইনী ভাবে নির্বাচন করায় উক্ত নির্বাচন বাতিল করার অত্র অফিসের কর্মকর্তার নিকট লিখিতভাবে আবেদন করেছি।

এ প্রসঙ্গে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও পারভেজ চৌধুরী কে অবগত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান,সেন্টমাটিন যাত্রী পরিবহন সার্ভিস বোট মালিক সমবায় সমিতির কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে বিগত ৯ মাস আগে। অত্র সমিতির নির্বাচনি কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য মৌঃ আব্দুর রহমানকে প্রধান করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি এডহক কমিটি গঠন করা হয়। এডহক কমিটি গত ৩ মাস দায়িত্ব নেয়ার পরও অত্র সমিতির কোন নির্বাচন করতে পারেননি। অত্র সমিতির ৩৯ জন সদস্যদের সমন্বয় করে আপোষের মাধ্যমে স্ব-স্ব সদস্য গোপন ব্যালটের মাধ্যমে তাদের ভোটধিকার প্রয়োগ করে সভাপতি,সহ-সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করেছেন। নির্বাচনের অনুষ্ঠানের ব্যালট ও সকল সদস্যের স্বাক্ষর রয়েছে।
এর আগে অত্র সমিতির নির্বাচনের বিষয়ে ইউএনও মহোদয় ও সমবায় কর্মকর্তাকে অবগত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, সেন্টমার্টিন যাত্রীবাহী সার্ভিস বোট মালিক সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। ২৮ আগষ্ট শনিবার দুপুর ১২টায় সেন্টমার্টিন বাজারে ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুর আহমদের কার্যালয়ে উক্ত নির্বাচন সম্পন্ন করা হয়।

সভাপতি পদে ২৬ ভোট পেয়ে নিবার্চিত হয়েছে আবু তালেব। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী রশিদ আহমদ পেয়েছেন ১৩ ভোট। মোট ভোটার ৩৯ জন। সহ সভাপতি পদে ২০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন আব্দু শুক্কুর। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ইমাম হোসাইন পেয়েছেন ১৯ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে ২০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন আবুল কালাম। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী সৈয়দ আলম পেয়েছেন ১৯ ভোট। সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন আলহাজ্ব নুর আহমেদ চেয়ারম্যান, জিয়াউল হক জিয়া, আব্দুর রউফ মেম্বার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •