পেকুয়া প্রতিনিধি :

কক্সবাজারের পেকুয়ায় পুলিশের উপর সংঘবদ্ধ হামলা ও আটককৃত আসামীকে ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় মামলা রুজু করেছেন থানা পুলিশ।

বুধবার সকালে পেকুয়া থানার এসআই মোঃ খায়ের উদ্দিন ভূঁইয়া বাদী হয়ে মগনামা মহুরী পাড়া এলাকার বাসিন্দা মৃত ছদর উদ্দিনের ছেলে মমতাজুল ইসলামকে প্রধান আসামী করে
৩৩ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ৯০জনকে অজ্ঞাতনামা করে মামলাটি রুজু করেন ওসি মোঃ সাইফুর রহমান মজুমদার।

মামলার এহাজার সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার সকালে মগনামা ইউপির চেয়ারম্যান ওয়াসিমের ভাই এনায়েত উল্লাহ ও মামাতো ভাই আরফাতকে মারধর করে গুরুতর আহত করে মমতাজসহ সংঘবদ্ধ একদল সন্ত্রাসী। এঘটায় পুলিশ অবগত হয়ে তাৎক্ষনিকভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মাঠে নেমে জানতে পারে হামলাকারীরা মহুরী পাড়ায় অবস্থান করতেছে। এসআই মোঃ খায়ের উদ্দিন ভূঁইয়ার নেতৃত্বে মহুরী পাড়ার ভিতরে গিয়ে ঘটনায় জড়িত নাছির উদ্দিন প্রকাশ বাদশা নামে একজনকে গ্রেফতার করে মহুরী পাড়া স্টেশনে আসা মাত্র সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে পুলিশ ডাকাত এসেছে এমন কথা প্রচার করলে এজাহারনামীয়সহ অজ্ঞাতনামা আসামীরা পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে তিন পুলিশ সদস্যকে আহত করে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। পুলিশের হাত থেকে অস্ত্র কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করলে ৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে হামলাকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেন। এসময় নাজু নামে একজনকে ঘটনাস্থল থেকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ তাদের নিরাপত্তার জন্য মামালাটি রুজু করেন।

পেকুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ সাইফুর রহমান মজুমদার মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, থানা প্রশাসনের কাজ হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্তে কাজ করা। দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা। সেখানে গিয়ে যদি পুলিশ হামলার শিকার হয় তাহলে পুলিশ তার ব্যবস্থা নিবেই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •