ইমাম খাইর, সিবিএন:
চট্টগ্রামের আকবর শাহ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) হলেন কক্সবাজারের উখিয়ার ভালুকিয়া গ্রামের বাসিন্দা শাকের আহমেদ।

বুধবার (২৫ আগষ্ট) তিনি নতুন কর্মস্থলে যোগদান করার কথা রয়েছে। ইতোপূর্বে তিনি ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিঅনের ওসি ছিলেন।

গত ২৯ জুলাই পুলিশ হেডকোয়ার্টারের আদেশে (জনসার্থে) শাকের আহমেদকে বদলি করা হয়। আদেশ অনুযায়ী ২২ অক্টোবর তিনি চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)তে যোগদান করেন। ২৪ আগষ্ট তাকে আকবর শাহ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) হিসেবে দায়িত্ব প্রদান করেন সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর।

শাকের আহমেদ ২০০৮ সালে বাংলাদেশ পুলিশে উপপরিদর্শক (এসআই) পদে নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। ২০০৯ সালে পুলিশ একাডেমিতে ১ বছরের প্রশিক্ষণ শেষে ২০১০ সালের মার্চে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)-এর রমনা থানায় যোগদান করেন। ২০১০ থেকে ২০১৩ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত রমনা, ধানমন্ডি ও সবুজবাগ থানায় দায়িত্ব পালন করেন।

সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)তে বদলি হন। ২০১৩ থেকে ২০১৫ সালের প্রথম কয়েক মাস পর্যন্ত সেখানে ছিলেন।

সিএমপি থেকে বদলি হন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কক্সবাজারে। ২০১৭ সালের আগষ্ট মাসে এসআই থেকে ইন্সপেক্টর পদোন্নতি পান।

পদোন্নতি পেয়ে পিবিআই থেকে ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিঅনে যোগদান করেন শাকের আহমেদ। ২০১৭ সালের ২১ সেপ্টেম্বর থেকে ২০২১ সালের ১১ আগষ্ট পর্যন্ত সেখানে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। দায়িত্বকালে তিনি যথেষ্ট সততা, দক্ষতার পরিচয় দেন। তাকে চৌকস ও মেধাবী অফিসার হিসেবে চেনে সবাই। ট্যুরিস্ট পুলিশের এসপি, এডিশনাল এসপি, এএসপিসহ সবার সাথে সমন্বয় রেখে কাজ করতেন। পর্যটকদের নিরাপত্তা বিধান ও সার্বক্ষণিক সেবা প্রদানে শাকের আহমেদ যথেষ্ট সুনাম কুড়িয়েছেন। একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা হিসেবে ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের ‘গুডবুকে’ ছিলেন।

এদিকে, আকবরশাহ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) হিসেবে দায়িত্ব পেয়ে মহান আল্লাহ তায়ালার শুকরিয়া করেছেন শাকের আহমেদ। সততা, মেধা ও অভিজ্ঞতাকে মূল্যায়নের জন্য তিনি সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীরের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। যথাযথ দায়িত্ব পালনে মহান রবের রহমত, ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের পরামর্শ, বন্ধুবান্ধব ও শুভাকাংখীদের দোয়া কামনা করেছেন।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •