প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
রোহিঙ্গা সংকট, জনসংখ্যার ঘনত্ব বৃদ্ধি এবং জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে উখিয়া উপজেলায় পরিবেশ, প্রকৃতি, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে করণীয় বিষয়ে এক মতবিনিময় সভা আজ উখিয়া প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এসোসিয়েশন ফর কো-অপারেশন এন্ড লিগ্যাল এইড বাংলাদেশ- একলাব, সেন্টার ফর এনভায়রনমেন্ট, হিউম্যান রাইটস এন্ড ডেভেলপমেন্ট ফোরাম- সিইএইচআরডিএফ, অর্ণব কক্সবাজার ও জেলা উপকূলীয় পল্লী উন্নয়ন পরিষদ এর যৌথ আয়োজনের এ সভায় পরিবেশ ও ইকোসিস্টেম রক্ষায় করণীয় বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জুপআপ চেয়ারম্যান নুরুল আমিন সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে এবং সিইএইচআরডিএফ প্রধান নির্বাহী মোঃ ইলিয়াছ মিয়া’র সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পালংখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ মনজুর।

প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্ণব কক্সবাজার এর প্রধান নির্বাহী নুরল আজিম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাজাপালং ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সদস্য হেলাল উদ্দিন।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন আনসার ভিডিপির উখিয়া উপজেলা সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী।

বক্তব্য রাখেন বালুখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক মুকুন্দ রুদ্র, গ্রামীণ শিশুবান্ধব পাঠশালার প্রধান শিক্ষক জাহেদুল আলম,

এতে বক্তারা বলেন, উখিয়া বাংলাদেশের সর্বদক্ষিণের একটি প্রাকৃতিক ব্যুহ। উখিয়ার পাহাড়গুলো প্রাকৃতিক দূর্যোগের জন্য বাধা হিসেবে কাজ করে। কিন্তু সাম্প্রতিক রোহিঙ্গা সংকট ও জনঘনত্বের বাড়ার ফলে কক্সবাজার প্রতিবেশ সংকটে পড়েছে। প্রায় দেড় হাজার একরের পাহাড় ও ভূমি আবাসস্থল হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে।

তাঁরা বলেন, উখিয়ার জীববৈচিত্র্য ও প্রকৃতি হুমকির মুখে । এ সংকট উত্তরণে ব্যাপক বৃক্ষায়ন, অরণ্য সংরক্ষণ, হাতি সংরক্ষণ, জলাশয়, খাল ও নদী রক্ষা, প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করা,পরিবেশ আইন বাস্তবায়ন, কৃষিপোযোগী সেচ ব্যবস্থা, বৃষ্টির পানির ব্যবহার, নাগরিক সমাজের অংশগ্রহণ নিশ্চিতকরণ, জনমতের ভিত্তিতে প্রকল্প বাস্তবায়ন, খাদ্য সুরক্ষা, মহাসড়কগুলোর পাশে বৃক্ষায়ন, বন অধিদপ্তরের কার্যক্রম ও কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি, পরিবেশ অধিদপ্তরের কার্যক্রমের সম্প্রসারণ ও গণসচেতনতা তৈরির আহবান জানান।

বক্তারা বলেন, চলমান জলবায়ু সংকট মোকাবেলায় সারাবিশ্বের কর্মসূচির অংশ হিসেবে এখন রিস্টোরেশন এর সময়। প্রাণ ও প্রজাতি রক্ষায় জীববৈচিত্র্যের সংরক্ষণ সময়ের দাবী। নইলে মানবজাতির বিলুপ্তি অবশ্যাম্ভবী।

সভায় উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা মধুসূ্ূদন দে, অর্ণব সদস্য সরওয়ার আলম, সাংবাদিক সাদেক হোসেন খোকা, তারুণ্য প্রতিনিধি কামাল উদ্দিন জয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •