ফারুক আহমদ, উখিয়া :
উখিয়া উপজেলার বালুখালী গ্রামের ইয়াবা ব্যবসায়ী সৈয়দ নুর ( ৩৫) ৪০ হাজার পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ আটক হয়েছে।
গত শুক্রবার রাতে মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের একটি টিম বাড়ি ঘেরাও করে ইয়াবাসহ বহু মামলার আসামি সৈয়দ নুর কে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন । তার পিতার নাম নুর আহমদ বার্মাইয়া নুর আহমদ।
টেকনাফ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কার্যালয়ের সাব ইন্সপেক্টর মোস্তফা মুকুল অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, সৈয়দ নূর একজন ইয়াবা কারবারি সিন্ডিকেটের অন্যতম সদস্য। তার নেতৃত্বে একটা বিশাল বাহিনী রয়েছে । বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের রেশন সিন্ডিকেট তার নিয়ন্ত্রণে চলে । বহু মামলার আসামী সৈয়দ নূর সাথে রয়েছে মিয়ানমারের ইয়াবা উৎপাদনকারীর সাথে সরাসরি সম্পৃক্ততা। প্রতি সপ্তাহে মিয়ানমার হতে সরাসরি সৈয়দ নূরের নামে বিশাল ইয়াবার চালান বালুখালীতে আসে।
মাদকদ্রব্য অধিদপ্তর কার্যালয়ের সাব-ইন্সপেক্টর মোস্তফা মুকুল জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত শুক্রবার রাতে পালংখালী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বালুখালী এলাকার সৈয়দ নুরের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় বাড়ি ঘেরাও করে বস্তাভর্তি ইয়াবা সহ তাকে আটক করা করতে সক্ষম হই। এলাকাবাসীর অভিমত আটক ইয়াবা ডিলার সৈয়দ নুর কে রিমান্ডে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে ইয়াবা সিন্ডিকেটে কারা কারা জড়িত তাদের নাম বেরিয়ে আসবে।
খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, বিভিন্ন অপরাধের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সৈয়দ নূর এর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। তৎমধ্যে মহেশখালী থানায় এফআইআর নং-১০,তারিখ-০৮/০৮/২০১৪, জিআর নং-২৫৪/১৪,ধারা -৯(৪)(খ)/৩০, ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩, এজাহারভুক্ত আসামী।উখিয়া থানার মামলা নম্বর ৩/২৩৪,তারিখ-০৩/০৭/২০১৮ ইংরেজী,ধারা১৪৩/১২৩/৩২৫/৩০৭/৫০৬;৩৭৯,পেনাল কোড- ১৮৬০।
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি থানার মামলা নং-২/৩৩,তারিখ-১২/০৫/২০১৭ ইং,জিআর ১৪৪/১৭,ধারা ১৯(১)এর ৯(খ) ১৯।উখিয়া থানার মামলা নং-২২,তারিখ-২১/০১/২০১৭ ইং,জিআর নং-২২।উখিয়নং-৩১/১৪,তারিখ-৩০/০৭/২০১৪ ইং,ধারা- ৩৭৯/৩২৩/১৪৩ পেনাল কোড-১৮৬০।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •