নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম এমএ বলেছেন, ১৫ আগস্ট কালোরাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে জিয়াউর রহমান এই দেশে হত্যাযজ্ঞের রাজনীতি শুরু করেছিলেন। সেই হত্যাযজ্ঞের রাজনীতির ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছিলেন জিয়াউর রহমানের স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, তার কু-পুত্র তারেক রহমানসহ বিএনপি-জামায়াত চক্র।
এমপি জাফর আলম বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নস্যাৎ করার উদ্দেশ্যেই বিএনপি-জামায়াত চক্র বার বার স্বাধীন দেশে ছোবল মেরেছিল। তাদের লক্ষ্য-উদ্দেশ্য ছিল স্বাধীন বাংলাদেশকে পাকিস্তানী ভাবধারায় ফিরিয়ে নিয়ে যাবে। স্বাধীনতা বিরোধী চক্র সেই ষড়যন্ত্রও অনেক বছর চালিয়েছিল। পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের ধারাবাহিকতায় ২০০৪ সালের ২১ আগস্টেও খুনি জিয়ার দল বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া, জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামী ও খালেদার পুত্র তারেক রহমানের প্রত্যক্ষ মদদে পাকিস্তানী জঙ্গিগোষ্ঠি দ্বারা বর্বর গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছে। এই হামলা চালানোর একমাত্র উদ্দেশ্য ছিল আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করে ফেলা। যেদিন একসঙ্গে ২৪ জন নেতাকর্মী নিহত হয়েছিলেন। আল্লাহর ইচ্ছায় সেইদিন প্রাণে বেঁচে গিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা।
শনিবার (২১ আগস্ট) দুপুরে চকরিয়ার বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ কর্নারে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের যৌথ উদ্যোগে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে খতমে কোরআন, দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন সংসদ সদস্য জাফর আলম।
চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি এম আর চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন হক জেসি চৌধুরী, পৌরসভা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তপন কান্তি দাশ, আওয়ামী লীগ নেতা রফিক উদ্দিন, অধ্যাপক একেএম শাহাবুদ্দীন, ছৈয়দ আলম, প্রচার সম্পাদক আবু মুছা, চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছিরসহ দলের উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবসে শহীদ দলীয় নেতাকর্মীদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় আলেম-ওলেমা নিয়ে খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন এমপি জাফর আলম। এসব আলেম-ওলেমা সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দীর্ঘক্ষণ দোয়া ও মোনাজাত করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •