আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:
চট্টগ্রামের আনোয়ারায় খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে নেমে এসেছে দলছুট একটি বন্যহাতি। হাতিটি ভোররাতে খাবারের সন্ধানে এলেও আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে মানুষের নজরে পড়ে যায়। এতে দলছুট হাতিটি এখান থেকে ওখানে ছুটতে থাকে। আর উৎসুক মানুষও দলছুট হাতিটির পিছু নেয়। এ অবস্থায় হাতিটিকে নিয়ে মানুষের মাঝে উদ্বেগ-আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়নের লোকালয়ে প্রথমে হাতিটি দেখতে পায় ঘুম থেকে জেগে উঠা মানুষ। এরপর বটতলী ইউনিয়নের পরীর বিল হয়ে বারশত ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ছুটতে থাকে হাতিটি।
স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী মহিউদ্দিন মনজুর জানান,দলছুট বন্যহাতিটি ভোর থেকে এই গ্রাম থেকে ওই গ্রামে ছুটে চলেছে। আর হাতির পিছু নিয়েছে উৎসুক মানুষও। বর্তমানে হাতিটি মানুষের তাড়া খেয়ে আবারও বরুমচড়ার দিকে ছুটে চলেছে। যার চারদিকে লোকালয়। ফলে তৈরি হয়েছে আতঙ্ক।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়,লোকালয়ে নেমে আসা হাতিটি পায়ে মাড়িয়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি করেছে। জমিতে থাকা একটি ট্রাক্টর উল্টে দিয়েছে। এছাড়া শুঁড় দিয়ে আছাড় মেরে এক দিনমজুরকে আহত করেছে। হাতিটি নিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
এদিকে দলছুট বন্যহাতি লোকালয়ে নেমে আসার খবরে এলিফেন্ট রেসপন্স টিম (ইআরটি) এবং পুলিশ সেখানে ছুটে যায়। তারা যৌথভাবে হাতিটিকে নির্দিষ্ট আবাসস্থলে ফেরানোর তৎপরতা শুরু করেছে। তবে গতকাল বিকেলে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হাতিটি পাহাড়ে ফেরাতে পারেনি তারা।
এ ব্যাপারে বাঁশখালীর জলদি অভয়ারণ্য রেঞ্জ কর্মকর্তা মো.আনিসুজ্জামান শেখ বলেন,বন্যহাতিটি খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে নেমে আসে। সেখানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এলিফেন্ট রেসপন্স টিমের (ইআরটি) সদস্যরা রয়েছেন। তারা হাতিটিকে নির্দিষ্ট আবাসে ফেরাতে চেষ্টা চালাচ্ছেন।
ক্যাপশন-খাবারের সন্ধানে এসে দলছুট হয়ে পড়ে হাতিটি। গতকাল চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার গু›দ্বীপ পাড়া থেকে তোলা ছবি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •