বাংলাট্রিবিউন: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে এসে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আজ মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) সকালে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির নেতারা তাদের অনুসারী ও কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে সমাধিতে ফুল দিতে এলে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় ৮ থেকে ১০ জন আহত হয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে। সমাধির গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিএনপি নেতাকর্মীরা সেখান থেকে চলে গেছেন।

গত ২ আগস্ট বিএনপি’র মেয়াদোত্তীর্ণ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার নির্বাহী কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে ঢাকা দক্ষিণে আবদুস সালামকে আহ্বায়ক এবং রফিকুল আলম মজনুকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। অন্যদিকে ঢাকা উত্তরে আমান উল্লাহ আমানকে আহ্বায়ক এবং আমিনুল হককে সদস্য সচিব করা হয়।

3পুলিশ ধাওয়া দিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। ছবি: নাসিরুল ইসলাম

দলের রীতি অনুযায়ী নতুন কমিটির নেতারা আজ তাদের অনুসারীদের নিয়ে জিয়ার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন। পরে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান বলেন, পুলিশের অনুমতি নিয়েই আমাদের কর্মসূচি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু আজ আমাদের নেতাকর্মীরা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ঢুকতেই পুলিশ প্রথমে অতর্কিতভাবে কোন উসকানি ছাড়াই হামলা চালায়।’ এতে তাদের ৮ থেকে ১০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলেও দাবি করেন তিনি।

এ দিকে পুলিশ জানিয়েছে, জিয়ার সমাধি স্থলে পৌঁছানোর পর বিএনপির এক গ্রুপের সঙ্গে প্রথমে সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি শান্ত করতে পুলিশ এসময় দুই গ্রুপকে শান্ত করার চেষ্ট করে। তখন পুলিশের সঙ্গেও বিএনপি নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়ায়।

2ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় বেশ কয়েকজন আহত হওয়ারও খবর পাওয়া গেছে

ডিএমপির শেরেবাংলা নগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানে আলম মুন্সি জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •