নিজস্ব প্রতিবেদক:

কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা বাংলাবাজারে দিনদুপুরে টমটম চুরির ঘটনা ঘটেছে। গত ১০ আগষ্ট বেলা ১ টার দিকে বাংলাবাজার স্টেশনস্থ কাজি অফিসের সামনের রাস্তায় চুরির ঘটনাটি ঘটে। খুলে নিয়ে গেছে টমটমের ৫টি ব্যাটারি। বিক্রি করে দিয়েছে দোকানে।

এ ঘটনায় অনজন শর্মা (৩৫) নামক একজনকে সন্দেহ করেছে গাড়ির মালিক নুর আহমদ। তিনি প্রতিকার চেয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় অভিযোগও করেছেন। অভিযুক্ত অনজন শর্মা চট্টগ্রামের দোহাজারি এলাকার বাসিন্দা হলেও বর্তমানে শহরের গাড়ির মাঠে গাড়ির পার্টসের দোকানদার।

টমটম গাড়ির মালিক নুর আহমদ অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, তার ছেলে মো. নেজাম উদ্দিন বাংলাবাজার স্টেশনস্থ কাজি অফিসের সামনের রাস্তায় গাড়িটি রেখে পার্শ্ববর্তী চায়ের দোকানে প্রশ্রাব করতে যায়। ১০ মিনিট পরে গিয়ে দেখে, গাড়িটি নাই। অনেক খোঁজ করেও পায়নি। বিকাল ৪টার দিকে চুরি হয়ে যাওয়া টমটমটি শহরের গাড়ির মাঠ এলাকার রাস্তার ওপর পরিত্যক্ত অবস্থায় আছে বলে সন্ধান পায়। গিয়ে সেটি উদ্ধার করে। তবে, গাড়ির ভেতরে থাকা ৫টি ব্যাটারি খুলে নিয়ে গেছে চোর সিন্ডিকেট।

এরপর ব্যাটারি উদ্ধারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় নুর আহমদ। বিশ্বস্ত সুত্র থেকে খবর পান, অনজন শর্মার দোকানে চোরাই ব্যাটারিসমূহ আছে।

পরে দোকানে গিয়ে ব্যাটারি শনাক্ত করেন গাড়ির মালিক পক্ষ। ব্যাটারি ফেরত চাইলে ১০ হাজার টাকা দাবি করেন দোকানদার অনজন শর্মা । অন্যথায় ব্যাটারি দিবে না। এমনকি উল্টো হুমকি ধমকি দেন-এমন অভিযোগ নুর আহমদের।

অনজন শর্মার দোকানে চোরাই গাড়ির পার্টস, ব্যাটারি ইত্যাদি বিক্রি হয়, তার সঙ্গে চোর সিন্ডিকেটের খাতির আছে মর্মে স্থানীয়দের মুখে শ্রুতি রয়েছে- এমনটি জানালেন টমটম মালিক নুর আহমদ।

এমতাবস্থায় চুরি হওয়া ৫টি ব্যাটারি উদ্ধারে থানার ওসিসহ সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

তবে, কোন ধরণের অপরাধী কিংবা চোর সিন্ডিকেটের সঙ্গে সম্পর্ক নাই দাবি করেন অভিযুক্ত অনজন শর্মা। গাড়ির মালিকের অভিযোগ মিথ্যা বলে জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •