আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:
জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে আনোয়ারা দক্ষিণ বন্দর উচ্চ বিদ্যালয়ে। রোববার সকালে বিদ্যালয় মিলনায়তনে প্রধান শিক্ষক এস এম এ সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ বন্দর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী মোহাম্মদ মহিউদ্দিন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপস্থিত ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী চৌধুরী বলেন, ” আমাদের প্রিয় বাংলাদেশের মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিভিন্ন জীবনীগ্রন্থ তোমাদের পাঠ করতে হবে। এই দেশকে স্বাধীন করার জন্য তাঁর যে কী পরিমাণ আত্মত্যাগ রয়েছে তা তোমরা বুঝতে পারবে তাঁর জীবনীগ্রন্থ পড়লে। বঙ্গবন্ধু সারাজীবন সংগ্রাম করে তোমাদের জন্য এই স্বাধীন বাংলাদেশ উপহার দিয়ে গেছেন। তোমরা পড়ালেখা শিখে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশকে ভবিষ্যতে উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তুলবে।”

বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী চৌধুরী আরো বলেন, ” পাকিস্তানিদের শোষণ, বৈষম্য ও অমানবিক আচরণ থেকে রক্ষা করার জন্য এই দেশ স্বাধীন করেছেন বঙ্গবন্ধু। তাই তোমাদেরও পড়ালেখা করে বঙ্গবন্ধুর মতো মানবিক মানুষ হতে হবে। ”

আলোচনা সভার আগে স্বাস্থ্য বিধি মেনে স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ছবি আঁকা ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার হিসেবে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীগ্রন্থসহ বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বিভিন্ন বই উপহার দেওয়া হয়।

শেষে বঙ্গবন্ধু ও পনের আগস্ট নিহত শহিদদের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন স্কুলের সহকারী শিক্ষক মৌলানা মো. আবদুল হক।

সহকারী শিক্ষক মোহাম্মদ আফসার উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্থানীয় শিক্ষানুরাগী আবদুল মালেক, এম. এ মান্নান, রামচন্দ্র দাশ চন্দন, দক্ষিণ বন্দর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাস্টার নুরুল আলম, আমেনা খাতুন, চুমকি নাথ, মো. ফয়েজুল হক, জেসমিন আকতার, হামিলা আকতার, লেখক রফিক আহমদ খান প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •