সিবিএন ডেস্ক:
আফগানিস্তানের ১৮টি প্রাদেশিক রাজধানী দখলে নিয়েছে সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান। হেরাত, কান্দাহারসহ একাধিক কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ শহর তালেবানের অধীনে চলে গেছে। এ অবস্থায় আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘ।

গত কয়েকদিন ধরে চারদিকে তালেবানের বিজয় উৎসব চলছে। আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে থেকে দখল করে নিচ্ছে প্রাদেশিক রাজধানীসহ সীমান্ত এলাকা। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা তাদের খবরে জানিয়েছে, শনিবার পর্যন্ত তালেবান ১৮টি প্রাদেশিক রাজধানী তাদের নিয়ন্ত্রণে নিতে সক্ষম হয়েছে। এ অবস্থায় রাজধানী কাবুলের খুব কাছাকাছি চলে এসেছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি। কোনও খবরে বলা হচ্ছে তারা রাজধানীর ৩০ মাইলের মধ্যে পৌঁছে গেছে।

এমন সংকটে তালেবানকে অবিলম্বে হামলা বন্ধের পাশাপাশি গৃহযুদ্ধ এড়াতে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস। গোষ্ঠীটির উদ্দেশে প্রথমবার তিনি এমন আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘এই সময়ে যে কোনও উপায়ে আলোচনা শুরু করা উচিত। আফগানিস্তান গৃহযুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে’। এদিকে মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন আশা করছে, আফগান বাহিনী তালেবানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারবে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জন কিরবি বলেন, মাঠে রাজনৈতিক ও সামরিক নেতৃত্ব দুটোই দেখতে চাই।

অনেকেই ধারণা করছে, যে কোনও সময় কাবুলের কাছাকাছি চলে আসতে পারে তালেবান। এতে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বড় ধরনের সংঘাত শুরু হতে পারে। এতে কাবুলের আশাপাশে আশ্রয় নেওয়া বহু বাস্তুচ্যুত মানুষ ঝুঁকিতে পড়বে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •