আজাদ মনসুর:
কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতনের প্রাক্তণ শিক্ষার্থী মেধাবী মুখ মোহাম্মাদ শহিদুল ইসলাম।
আজ শিক্ষাজীবনের সর্ব্বোচ্চ ডিগ্রি পিএইচডি অর্জন করে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস টেক ইউনিভার্সিটির সমাবর্তন অনুষ্টানে দ্যুতি ছড়িয়েছেন।
উপজেলার ঈদগাঁও সদর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ মাইজ পাড়া এলাকার সাবেক জনপ্রতিনিধি মোহাম্মদ রশিদ মেম্বারের সুযোগ্য সন্তান তিনি।
গ্রামের কর্দমাক্ত মাঠে বেড়ে উঠা সেই শহিদ আজ টেক্সাস টেক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করে বাবা-মা, পাড়া প্রতিবেশীর এমনকি কক্সবাজারের মুখ উজ্জ্বল করেছেন।
ডক্টর শহিদুল ইসলাম তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আসলে ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়। প্রন্ডন্ড ইচ্ছা শক্তি থেকেই বিদেশে পড়ালেখা। আজ আমার ও পরিবারের ইচ্ছেরা পুরণ হয়েছে। এতে মহান আল্লাহর প্রতি শোকরিয়া জ্ঞাপনসহ পিতা-মাতা, চাচা-চাচী, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও স্বজনদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।
তাঁর চাচা বর্ণিত স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক সাংবাদিক নুরুল আমিন হেলালী জানিয়েছেন, ড. শহিদুল ইসলাম ছোট বেলা থেকে অত্যন্ত মেধাবী ছিলেন। মিষ্টি মিষ্টি কথা বলত, মিষ্টি মিষ্টি হাসি দিত এবং তাঁর একটাই জেদ ছিল সে লেখাপড়া শেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করবেন। সেই লক্ষ্যেই প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এপ্লাইড কেমিষ্ট্রি এন্ড কেমিক্যাল ইন্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তির সুযোগ পান এবং সেখান থেকে কৃতিত্বের সাথে বিএসসি অনার্স এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন।
পরে অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে চাকুরির সুযোগ হলেও ছোট বেলার ইচ্ছা পুরণ করতে শিক্ষকতার মত মহান পেশায় নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এপ্লাইড কেমিষ্ট্রি এন্ড কেমিকেল ইন্জিনিয়ারিং বিভাগে অধ্যাপনায় যোগ দেন।
চাকুরির অল্পদিনের ব্যবধানে স্কলারশিপ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান এবং উচ্চতর শিক্ষার ডিগ্রি ডক্টর অব ফিলোসফি (পিএইচডি) লাভ করলেন কক্সবাজারের কৃর্তিমান সন্তান মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম।
যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস টেক ইউনিভার্সিটর রসায়ন বিভাগ থেকে তিনি পিএইচডি ডিগ্রির পাঠ চুকিয়েছেন।
রসায়ন বিজ্ঞানের আল্ট্রাসাউন্ড ব্যবহার করে বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ণ কিন্তু সহজলভ্য নই এ রকম রাসায়নিক উপাদান কিভাবে প্রস্তুত করা যায় গবেষণার থিসিসে এমন বিষয়টি চমকপ্রদভাবে উপস্থাপন করেন দরিয়াপাড়ের গর্বিত এ বরপুত্র।
যার ফলশ্রুতিতে ৭ আগষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আলোঝলমলে হল রুমে সমাবর্তন অনুষ্টানে তাঁকে উত্তরীয়, মেডেল এবং সার্টিফিকেট প্রদান করা।
শিক্ষাজীবনে ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন থেকে সাফল্যের সাথে এসএসসি, কক্সবাজার সরকারি কলেজ থেকে কৃতিত্বের সাথে এইচএসসি পাশ করেন।
পরে প্রাচ্যের অক্সফোর্ডখ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এপ্লাইড কেমিষ্ট্রি এন্ড কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে বিএসসি অনার্স এমএসসি ডিগ্রী অর্জন করেন যা চাকুরীর প্রথম পরীক্ষাতেই নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মত একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে এপ্লাইড কেমিষ্ট্রি এন্ড কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষকতা করার সুযোগ তৈরি হয় শহিদের।
যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস টেক ইউনিভার্সিটির রসায়ন বিভাগের প্রফেসর ডক্টর ডুমিনিক জে ক্যাসেডোন্টেজের তত্বাবধানে পিএইচডি সম্পন্ন করা গ্রামের সারল্যময় এ ছেলেটির নামের আগে ডক্টর লিখতে আর বাধা থাকল না।
সহধর্মিণীও সেখানে পিএইচডি গবেষণায় রত আছেন। তার ছোট দুই বোন সম্প্রতি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সাথে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন।
মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা বিএনপির  আহবায়ক মরহুম আলহাজ্ব মোঃ শফি, কলাতলীস্থ হোটেল হিলপার্কের স্বত্বাধিকারী ও ফ্রেশ ইন রেস্তোঁরার ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুল কবির ও সদর যুবলীগের সহ-সভাপতি নুরুল আবছারের ভাতিজ। স্বজন, বন্ধু-বান্ধব ও শুভাকাংখিদের অভিবাদনের বার্তা যেন একটি আলোকিত সমাজ বির্নিমান তথা আগামী
প্রজন্মের কাছে নতুন মাইল ফলক হয়ে থাকল একজন মেধাবী শহীদুল ইসলামের নামটি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •